রোহিঙ্গাদের নয় বাংলাদেশের বৌদ্ধদের চায় মিয়ানমার

মিয়ানমারের নির্যাতনের শিকার হয়ে বাংলাদেশে পালিয়ে আসা রোহিঙ্গাদের জমিতে আবাস গড়ে তুলতে বাংলাদেশি বৌদ্ধদের সীমান্ত পাড়ি দিয়ে রাখাইনে যেতে উৎসাহিত করছে মিয়ানমার। এরই মধ্যে বাংলাদেশের প্রত্যন্ত পাহাড়ি ও বনাঞ্চলীয় এলাকায় বসবাসরত ৫০টি পরিবার ফ্রি খাবার ও জমির লোভে এরইমধ্যে রাখাইন রাজ্যে পৌঁছেছে।

স্থানীয় কাউন্সিলর মুইং সুই থিওয়ি বলেছেন, বান্দরবান পার্বত্য জেলা থেকে মারমা ও ম্রো উপজাতি পরিবার তাদের বাড়ি ছেড়ে চলে গেছে। তিনি বলেন, সাঙ্গু সংরক্ষিত বনাঞ্চল থেকে গেলো মাসে ২২ পরিবার তাদের বাড়ি ছেড়ে চলে গেছে।

মুইং সুই থিওয়ি বলেছেন, ‘চলে যাওয়া পরিবারগুলোর বেশিরভাগই বৌদ্ধ। তবে কিছু খ্রিস্টান পরিবারও রয়েছে। তাদের পাঁচ বছরের জন্য ফ্রি জমি, নাগরিকত্ব ও ফ্রি খাবারের লোভ দেখিয়েছে মিয়ানমার। এতে মনে হচ্ছে বাংলাদেশে পালিয়ে আসা মুসলিম রোহিঙ্গাদের নয় বাংলাদেশের বৌদ্ধদের চায় মিয়ানমার’। তিনি আরও বলেন, তারা বার্মায় (মিয়ানমার) রোহিঙ্গাদের ফেলে আসা খালি জমিতে বসবাস করবেন। চলে যাওয়া পরিবারগুলো খুব গরিব।

গেলো বছরের ২৫ আগস্ট রাখাইনে মিয়ানমার সেনাবাহিনী ক্লিয়ারেন্স অপারেশন শুরু করার পর প্রায় সাত লাখ রোহিঙ্গা প্রতিবেশী বাংলাদেশে পালিয়ে আসে। যুক্তরাষ্ট্র ও জাতিসংঘের কর্মকর্তারা অভিযোগ করেন, রাখাইনে জাতিগত শুদ্ধি অভিযান চালাচ্ছে মিয়ানমারের সেনাবাহিনী।