বিকালে বাগেরহাটের মংলা বন্দরে যাচ্ছেন রাষ্ট্রপতি

২ দিনের সফরে আজ বিকালে বাগেরহাটের মংলা বন্দরে যাচ্ছেন রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ।মংলা সফরের প্রথম দিন আজ সন্ধ্যায় মোংলা বন্দরের ৬৭তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে ভাষণ দেবেন। প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর অনুষ্ঠানে যোগ দিয়ে প্রথমেই তিনি বন্দরের প্রশাসনিক ভবন চত্বরে একটি বৃক্ষ রোপন করবেন।

এরপর অনুষ্ঠানে মংলা বন্দর কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান কমডোর একেএম ফারুক হাসানের স্বাগত বক্তব্যের পর বন্দরের উপর নির্মিত ভিডিও চিত্র দেখবেন। রাষ্ট্রপতিসহ আমন্ত্রিত অতিথিদের বক্তৃতা শেষে বন্দরের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর কেক কাটবেন রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ।

প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী অনুষ্ঠানের প্রথমভাগে রাষ্ট্রপতির ভাষণের পর রাতে দ্বিতীয় ভাগে তার সম্মানে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে যোগ দিবেন। মোংলা বন্দরের রেষ্টহাউস ‘পারিজাতে’ রাত্রিযাপনের পর বৃহস্পতিবার সকালে জাহাজযোগে পশুর চ্যানেল পরিদর্শন করবেন তিনি।

বন্দর কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান জানান, রাষ্ট্রপতি জি-টু-জি প্রক্রিয়ায় চীনের অর্থায়নে দুটি টার্মিনাল এবং পিপিপি প্রক্রিয়ায় আরো দুটিসহ মোট চারটি টার্মিনাল নির্মাণের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করবেন। এ ছাড়া বন্দরের পশুর চ্যানেলে তেল ছড়িয়ে পড়লে তা অপসারণের জন্য সদ্য কেনা পশুর ক্লিনার-০১ নামের জাহাজের কমিশনিং এবং মোংলা থেকে রামপাল পর্যন্ত ড্রেজিং কার্যক্রমেরও উদ্বোধন করবেন তিনি। আগামীকাল বৃহস্পতিবার সকালে তিনি মোংলা বন্দরের পশুর চ্যানেল পরিদর্শন করবেন।

বন্দর সূত্রে জানা গেছে, রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ আজ সন্ধ্যা ৭টায় বন্দর কর্তৃপক্ষের ৬৭তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে বক্তব্য দেবেন। ওই অনুষ্ঠানের প্রথমেই রাষ্ট্রপতি বন্দরের প্রশাসনিক ভবন চত্বরে একটি গাছের চারা লাগাবেন। অনুষ্ঠানের ফাঁকে বন্দরের ওপর নির্মিত একটি ভিডিও চিত্র প্রদর্শন করা হবে। অনুষ্ঠানের শেষ দিকে বন্দরের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর কেক কাটবেন প্রধান অতিথি রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ।

অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য দেবেন নৌপরিবহনমন্ত্রী শাজাহান খান, স্থানীয় সংসদ সদস্য তালুকদার আব্দুল খালেক ও বন্দর কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান কমোডর এ কে এম ফারুক হাসান।

অনুষ্ঠানের প্রথম ভাগে বক্তব্যের পর দ্বিতীয় ভাগে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে যোগ দেবেন রাষ্ট্রপতি। এরপর বন্দরের রেস্টহাউস ‘পারিজাতে’ রাত্রি যাপন করবেন তিনি। আগামীকাল বৃহস্পতিবার সকালে বিলাসবহুল জাহাজযোগে পশুর চ্যানেল পরিদর্শন করবেন রাষ্ট্রপতি।

রাষ্ট্রপতির সফর ঘিরে মোংলা বন্দরে কঠোর নিরাপত্তাব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। সেই সঙ্গে বন্দর এলাকায় পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতা ও সৌন্দর্যবর্ধনে ব্যাপক আলোক ও সাজসজ্জার আয়োজন করা হয়েছে।

এদিকে রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদের আগমন উপলক্ষে মোংলা-রামপালবাসীর পক্ষ থেকে সাবেক প্রতিমন্ত্রী, খুলনা সিটি করপোরেশনের সাবেক মেয়র ও স্থানীয় সংসদ সদস্য তালুকদার আব্দুল খালেক তাঁকে শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানিয়েছেন।