বান্দরবানে দৃষ্টিপ্রতিবন্ধীদের ক্রিকেট প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত

বান্দরবানে দৃষ্টি প্রতিবন্ধীদের নিয়ে অনুষ্টিত প্রীতি ক্রিকেট ম্যাচে বিশাল ব্যবধানে জয়লাভ করে চ্যাম্পিয়ন হয়েছে স্বাগতিক সুয়ালক দৃষ্টিপ্রতিবন্ধী ক্রিকেট দল। বুধবার বিকেলে সুয়ালক উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে অনুষ্টিত প্রীতি ম্যাচে তারা হারায় চট্টগ্রামের লোহাগাড়া ব্লাইন্ড ক্রিকেট টিমকে। বান্দরবান জেলা সমাজ সেবা বিভাগের পরিচালিত সমন্বিত দৃষ্টিপ্রতিবন্ধী শিক্ষা কার্যক্রম-সুয়ালক এ প্রীতি ম্যাচের আয়োজন করে।বান্দরবানে দৃষ্টিপ্রতিবন্ধীদের ক্রিকেট প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত

ম্যাচের শুরুতে টসে জিতে নির্ধারিত ওভারে ব্যাটিং করে ১৫১ রানের বিশাল টার্গেট দেয় লোহাগাড়া ব্লাইন্ড টিম। জবাবে বিশাল টার্গেট নিয়ে ব্যাট করতে নেমে সুয়ালক ব্লাইন্ড ক্রিকেট টিম ১উইকেট হারিয়ে জয়ের লক্ষ্যে পৌছে যায়। তাদের পক্ষে সর্বোচ্চ রান করেন সুকেল তংচঙ্গ্যা- ৫৪ ও রিন্টু বিকাশ- ৪০।

খেলা শেষে পুরষ্কার বিতরণ করেন বান্দরবান পার্বত্য জেলা পরিষদের সদস্য ও সমাজ সেবা বিষয়ক কনভেনিং কমিটির আহ্বায়ক কা ন জয় ত ঙ্গ্যা। প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি বলেন, দৃষ্টিপ্রতিবন্ধীরাও কোন অংশে পিছিয়ে নেয়। তারা তাদের ইচ্ছা শক্তির মাধ্যমে এগিয়ে যাচ্ছে। এই ব্লাইন্ড ক্রিকেট প্রতিযোগিতার মাধ্যমে দেখিয়ে দিয়েছে আজ। আমরা সবাই যদি দৃষ্টিপ্রতিবন্ধীদের পাশে এগিয়ে আসি তাহলে আমাদের ব্লাইল্ড ক্রিকেটাররা পড়াশুনার পাশপাশি খেলাধুলা চালিয়ে যেতে পারবে।

জেলা সমাজ সেবা বিভাগের উপ-পরিচালক মিল্টন মুহুরীর সভাপতিত্বে পুরষ্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে অন্যান্যদের মধ্যে বান্দরবান উপজেলা সমাজসেবা অফিসার রাসেল আহমেদ, সুয়ালক সমন্বিত দৃষ্টিপ্রতিবন্ধী শিক্ষা কার্যক্রমের রির্সোস শিক্ষক সত্যজিৎ মজুমদার, সরকারী শিশু পরিবারের উপতত্বাবধায়ক সফিকুল ইসলাম, বান্দরবান পার্বত্য জেলা পরিষদের প্রতিবন্ধী উন্নয়ন ফোরামের শিক্ষক লাল হিম বমসহ স্থানীয় জনপ্রতিনিধি, সাংবাদিক, স্কুলের ছাত্র-ছাত্রীরা ও বিভিন্ন শ্রেণী পেশার মানুষ উপস্থিত ছিলেন।

এদিকে অন্ধরা কীভাবে ব্যাটিং, বলিং এবং ক্যাচ ধরবেন এমনই প্রশ্ন নিয়ে ম্যাচে শত শত উৎসুক জনতা ও স্কুল শিক্ষার্থীরা খেলা উপভোগ করতে মাঠে জড়ো হন। এসময় ব্যাটিং ও বলিংয়ে মুর্হুর মুর্হুর করতালি দিয়ে প্রতিবন্ধী খেলোয়াড়দের উৎসাহ জানান তারা। খেলায় অভিমত ব্যক্ত করতে গিয়ে প্রতিবন্ধী ক্রিকেটাররা আগামীতে বান্দরবানে প্রতিবন্ধী ক্রিকেট টিম গঠনের দাবী জানান এবং তাদের সার্বিক সহযোগিতা ও পরিচর্যার জন্য সমাজ সেবা বিভাগের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।

সোহেল কান্তি নাথ, বান্দরবান প্রতিনিধি