জোড়া গোলে ২৮ বছর পর চেলসির মাঠে জয়োৎসব টটেনহ্যামের

স্ট্যামফোর্ড ব্রিজে অবশেষে জয়ের দেখা পেল টটেনহ্যাম হটস্পার। ডেলে আলির জোড়া গোলে ২৮ বছর পর চেলসির মাঠে জয়োৎসব করেছে ক্লাবটি। রোববার স্থানীয় সময় বিকালে ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগের ম্যাচটি ৩-১ গোলে জিতেছে মাওরিসিও পচেত্তিনোর দল। আলভারো মোরাতার গোলে পিছিয়ে পড়ার পর ক্রিস্তিয়ান এরিকসেনের গোলে সমতায় ফিরে টটেনহ্যাম।

চেলসির মাঠে শেষ ২৭ লিগ ম্যাচে জয়শূন্য ছিল টটেনহ্যাম; ১৮টি জিতেছিল স্বাগতিকরা, ৯টি ড্র। এর আগে সবশেষ টটেনহ্যাম এখানে জিতেছিল ১৯৯০ সালের ফেব্রুয়ারিতে, ২-১ গোলে। ম্যাচের একাদশ মিনিটে প্রতিপক্ষের দুই খেলোয়াড়ের মধ্যে থেকে ডেলে আলির হেড একটুর জন্য লক্ষ্যভ্রষ্ট হয়। ২৮তম মিনিটে দূরপাল্লার শটে টটেনহ্যাম গোলরক্ষক হুগো লরিসের পরীক্ষা নেন ভিক্তর মোজেস।

৩০তম মিনিটে এগিয়ে যায় চেলসি। ডান দিক থেকে নাইজেরিয়ান মিডফিল্ডার মোজেসের ক্রসে হেডে গোলটি করেন স্প্যানিশ স্ট্রাইকার মোরাতা। ৪৩তম মিনিটে মার্কোস আলোনসোর কোনাকুনি শট ঝাঁপিয়ে ঠেকান লরিস। এর খানিক পর যোগ করা সময়ের প্রথম মিনিটে প্রায় ২৫ গজ দূর থেকে দারুণ শটে টটেনহ্যামকে সমতায় ফেরান ডেনমার্কের মিডফিল্ডার ক্রিস্তিয়ান এরিকসেন।

উইলি কাবাইয়েরোর নৈপুণ্যে ৬০তম মিনিটে বেঁচে যায় চেলসি। ডি-বক্সের ঠিক বাইরে থেকে দক্ষিণ কোরিয়ার ফরোয়ার্ড সন হিউং-মিনের বুলেট শট ঝাঁপিয়ে ঠেকিয়েন দেন গোলরক্ষক। এর দুই মিনিট পরেই ডেলে আলির দারুণ নৈপুণ্যে এগিয়ে যায় টটেনহ্যাম। এরিক দিয়েরের উঁচু করে বাড়ানো বল পা বাড়িয়ে নিয়ন্ত্রণে নিয়ে ডান পায়ের শটে লক্ষ্যভেদ করেন ইংলিশ মিডফিল্ডার।

আর ৬৬তম মিনিটে জয় প্রায় নিশ্চিত করে ফেলেন আলি। হিউং-মিনের দুটি প্রচেষ্টা কাবাইয়েরো ঠেকিয়ে দেওয়ার পর জটলার মধ্যে বল পেয়ে জালে পাঠান তিনি। এই জয়ে লিগের প্রথম পর্বে হারের প্রতিশোধও নেওয়া হলো টটেনহ্যামের। অগাস্টে তারা ঘরের মাঠে গতবারের চ্যাম্পিয়ন চেলসির কাছে ২-১ গোলে হেরেছিল।

৩১ ম্যাচে ১৯ জয় ও সাত ড্রয়ে ৬৪ পয়েন্ট নিয়ে চতুর্থ স্থানে আছে টটেনহ্যাম হটম্পার। ৮ পয়েন্ট কম নিয়ে পঞ্চম স্থানে আছে চেলসি। ৮৪ পয়েন্ট নিয়ে শিরোপা জয়ের খুব কাছে আছে পেপ গুয়ার্দিওলার ম্যানচেস্টার সিটি। ৬৮ পয়েন্ট নিয়ে দুই নম্বরে রয়েছে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড। ৩২ ম্যাচে ৬৬ পয়েন্ট নিয়ে তৃতীয় স্থানে লিভারপুল। রোববার প্রথম ম্যাচে স্টোক সিটিকে ৩-০ গোলে হারানো আর্সেনাল ৩১ ম্যাচে ৫১ পয়েন্ট নিয়ে ষষ্ঠ স্থানে আছে।