বান্দরবানে শিক্ষা ও চাকুরী ক্ষেত্রে কোটা সংস্কারের দাবীতে মানববন্ধন

বান্দরবানে শিক্ষা-চাকুরী ক্ষেত্রে কোটা সংস্কারের দাবীতে মানববন্ধন কর্মসূচী পালন করেছে বাঙ্গালী ছাত্র পরিষদ। রোববার সকালে বান্দরবান প্রেসক্লাবের সামনে পার্বত্য বাঙ্গালী ছাত্র পরিষদের ব্যানারে পাহাড়ের পিছিয়ে পড়া জনগোষ্ঠীর সুবিধার্থে উচ্চ শিক্ষা এবং চাকুরীর ক্ষেত্রে উপজাতীয় কোটা পদ্ধতি সংস্কার করে পার্বত্য কোটা চালুর দাবীতে ঘন্টাব্যাপী মানববন্ধন কর্মসূচী পালন করেছে ছাত্ররা। ছাত্রদের কর্মসূচীতে একমত পোষন করে পার্বত্য নাগরিক পরিষদের নেতাকর্মী’সহ বিভিন্ন শ্রেণী পেশার লোকজনেরাও মানববন্ধনে অংশ নেয়।

কর্মসূচীতে বক্তব্য রাখেন পার্বত্য নাগরিক পরিষদের জেলা সভাপতি আতিকুর রহমান, পার্বত্য বাঙ্গালী ছাত্র পরিষদের কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক কাওছার উল্লাহ, জেলা ছাত্র পরিষদের সভাপতি মিজানুর রহমান, ছাত্রনেতা সফিকুর রহমান এবং হোসের মোবারক।

বান্দরবান নাগরিক পরিষদ সভাপতি আতিকুর রহমান বলেন, উপজাতীয় কোটা অনুসারে চাকমা সম্প্রদায় শিক্ষা এবং চাকুরী ক্ষেত্রে সবচেয়ে বেশি সুযোগ সুবিধা ভোগ করছেন। পাহাড়ের বাঙ্গালী, মারমা, বম, ম্রো’সহ অন্যসম্প্রদায়গুলো সর্বক্ষেত্রে বঞ্চিত হচ্ছে। সমান অধিকার নিশ্চিত করতে কোটা পদ্ধতি সংস্কার করে পার্বত্য কোটা চালুর দাবী জানানো হয়।

তিনি আরো বলেন, রাঙ্গামাটির চাকমা রাজা দেবাশিষ রায় একজন পাকিস্তানী রাজাকারের পুত্র হওয়া সত্ত্বেও সরকারী বিভিন্ন সুযোগ সুবিধা ভোগ করছেন। তাকে গ্রেফতার করে তার বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নিতে হবে। অপরদিকে জ্যোতিরেন্দ্র বোধিপ্রিয় সন্তু লারমা পার্বত্য চট্টগ্রাম আঞ্চলিক পরিষদের চেয়ারম্যানের সুবাধে গাড়ীতে জাতীয় পতাকা ব্যবহার করছেন। কিন্তু জাতীয় কোনো কর্মসূচীতে তার অংশগ্রহণ নেই বলে অভিযোগও করেন তিনি।

সোহেল কান্তি নাথ, বান্দরবান প্রতিনিধি