ঝিনাইদহে কৃষি বাজেট শুনানী অনুষ্ঠিত

কৃষি উন্নয়নে বাজেট বৃদ্ধির লক্ষ্যে ঝিনাইদহে কৃষি বাজেট শুনানী অনুষ্ঠিত হয়েছে। খাদ্য নিরাপত্তা নেটওয়ার্ক (খানি)’র স্বাধীন কৃষক সংগঠনের আয়োজনে বৃহস্পতিবার বিকেলে শহরের পুরাতন ডিসি কোর্ট চত্বরে এ শুনানী অনুষ্ঠিত হয়।

আলোচনা প্যানেলে উপস্থিত ছিলেন জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক জিএম আব্দুর রউফ, জেলা প্রাণী সম্পদ কর্মকর্তা ডা: হাফিজুর রহমান, জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের প্রশিক্ষণ কর্মকর্তা ওয়াহিদুর রহমান, সদর উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা ড. খান মোঃ মনিরুজ্জামান, মৃত্তিকা সম্পদ উন্নয়ন ইন্সটিটিউটের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা নাজমুল ইসলাম, জেলা জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষন অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক সুচন্দন মন্ডল, মানবাধিকার কর্মী আমিনুর রহমান টুকু ও এন এম শাহজালাল। অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন উন্নয়ন ধারার নির্বাহী পরিচালক কৃষিবিদ শহীদুল ইসলাম।

শুনানীতে জেলার বিভিন্ন উপজেলা থেকে আসা ২ শতাধিক কৃষক-কৃষাণী অংশ নেয়। শুনানী অনুষ্ঠানে কৃষকদের পক্ষ থেকে আসন্ন বাজেটে বিভিন্ন দাবী-দাওয়া তুলে ধরে বক্তব্য রাখেন স্বাধীন কৃষক সংগঠনের কেন্দ্রীয় সভাপতি রুবায়েত হোসেন মোল্লা, ইউনিয়ন স্বাধীন কৃষক সংগঠনের নেতা মোস্তাফিজুর রহমান মিঠু, বাণু বেগম, আক্কাচ আলী, ইসহাক আলী, নুরুল ইসলাম, শিরীনা খাতুন সহ অন্যান্য কৃষান-কৃষাণী। বক্তারা, নারী কৃষকের রাষ্ট্রীয় স্বীকৃতি না থাকা, ভ্যাক্সিনেসন সুবিধার অপ্রতুলতা, উৎপাদিত পণ্যের লাভজনক মূল্য না পাওয়া, কৃষি প্রণোদনা সঠিকভাবে না পাওয়া, সরকারীভাবে পণ্য ক্রয়ের ক্ষেত্রে সরাসরি কৃষকের কাছ থেকে পণ্য ক্রয় না করা, জৈব কৃষি ও নিরাপদ খাদ্য উৎপাদন ও বিপণনে সরকারি সহযোগিতার অভাব, বাজারে কৃষিপণ্য ক্রয়-বিক্রয়ে ওজনে কারচুপি, কৃষকের ১০ টাকার ব্যাংক এ্যাকাউন্টের অকার্যকারীতা, কৃষি ঋণসহ বিভিন্ন সেবা প্রাপ্তিতে জটিলতা প্রভৃতি সমস্যাগুলো তুলে ধরেন।

আগামী জাতীয় বাজেটে কৃষিখাতে সর্বোচ্চ বরাদ্দ প্রদান, জৈব সার ও জৈব প্রযুক্তি সম্প্রসারণ ও নিরাপদ খাদ্য উৎপাদনে কার্যকরী উদ্যোগ গ্রহণ, নারী কৃষকের রাষ্ট্রীয় স্বীকৃতি প্রদান, ফসলের লাভজনক মূল্য নিশ্চিত করা এবং ফসলের জন্য শস্য বীমা চালুর দাবী জানানো হয়। কৃষি বিষয়ে অতিথিবৃন্দ কৃষকদের এ দাবী এবং সুপারিশমালার প্রতি সমর্থন জানান।

মোঃ জাহিদুর রহমান তারিক, ঝিনাইদহ প্রতিনিধি