একের পর এক মেলোডি তৈরি করছেন অটিস্টিক তরুণ মাইকেল

অটিস্টিক তরুণ মাইকেল ফুলার। তীব্র মাত্রার অটিজম সমস্যায় ভুগছেন। কিন্তু মেধা দিয়ে একের পর এক মেলোডি তৈরি করে যাচ্ছেন তিনি।

তরুণ সঙ্গীত শিল্পী মাইকেল ফুলার। বয়স ১৭ বছর। কিন্তু আর দশ জন সঙ্গীত শিল্পীর মতো নন তিনি। তিনি পৃথিবীটাকে দেখেন শব্দ ছাড়া। অথচ সেই মাইকেলই একের পর এক মেলোডি তৈরি করছেন হাইওয়ে কিংবা ট্রেন চলার শব্দ থেকে। শব্দের সঙ্গে তার এ সংযোগ স্থাপনের ইতিহাস বেশ দীর্ঘ। ১১ বছর বয়সেই মাইকেল ফুলার বাজাতে শিখে গিয়েছিলেন। অথচ তার নিজের মা কখনই ক্লাসিক্যাল সঙ্গীত শোনেননি। মোবাইল ফোনের অ্যাপের মাধ্যমে পিয়ানো বাজানোটাও শিখেছেন মাইকেল। নিজের এ ব্যতিক্রমী মেধাকে তিনি বর্ণণা করেন এভাবে যে তার মাথায় সঙ্গীতটা ডাউনলোড হচ্ছে।

বিস্ময় জাগানো ওই তরুণ বলেন, ‘আমি কারো সাহায্য ছাড়াই পিয়ানো বাজানো শিখেছি। গান নিয়ে গুগল ও ইউটিউবে আরও পড়াশুনা করা করছি। আমি সঙ্গীতের ভেতর ডুবে যাই এবং সঙ্গীত আমার মনে গেঁথে যায়।’

বর্তমানে ইংল্যান্ডের রিচমন্ড কলেজে পারফর্মিং আর্ট নিয়ে ডিপ্লোমা করছেন মাইকেল ফুলার। সঙ্গীত নিয়ে আরও অনেক দূর যেতে চান।