পদ্মার চরের বুকে বেসরকারি হাসপাতালের সাইনবোর্ড!

চারদিকে ধু-ধু বালুচর। এককালের উত্তাল পদ্মা নদীর বুক চিরে জেগে উঠেছে এ চর। মাওয়া ঘাট থেকে ফেরি ছেড়ে আসার কিছুক্ষণ পর পর নদীর প্রশস্ততা সরু হতে দেখা যায়। এ দৃশ্য দেখে পদ্মা নদীকে খাল মনে হচ্ছে।

নদীতে পানি কম থাকায় ফেরী ও লঞ্চ চরে আটকে পড়ছে। ফলে লঞ্চগুলোকে ধীর গতিতে পথ চলতে দেখা যায়। শাহপরান ফেরীর একজন চালক জানান, আগের সেই উত্তাল পদ্মা আর নেই। বর্ষার সময় জেগে উঠা চরে পানি উঠে।

হঠাৎ করে চরের বুক চিরে একটি প্রস্তাবিত বেসরকারি হাসপাতালের সাইনবোর্ড চোখে পড়ে। লেখা আছে ফরাজী হাসপাতাল লিমিটেড। বাস্তবায়নে জনৈক আনোয়ার ফরাজী ইমন। ধু-ধু বালুর চরে এই সাইনবোর্ড দেখে কারও বিশ্বাস হয় না জেগে উঠা চরে হাসপাতাল হবে। আর হলেও কবে হবে? শুক্রবার মাওয়া থেকে ফেরীতে পদ্মা পারাপারারের সময় এ দৃশ্য চোখে পড়ে।