অবরুদ্ধ সিরিয় নাগরিকদের জন্য ত্রাণ পাঠানো হতে পারে: ইউনিসেফ

সিরিয়ার যুদ্ধ কবলিত পূর্বাঞ্চলীয় ঘৌতা’র দৌমা শহরে প্রায় ১ লাখ ৮০ হাজার অবরুদ্ধ বাসিন্দার জন্য জাতিসংঘের ত্রাণ প্রবেশে সিরিয় সরকার অনুমতি প্রদান করতে পারে বলে জাতিসংঘের শিশু অধিকার বিষয়ক সংগঠন ইউনিসেফ এর মধ্যপ্রাচ্য অঞ্চলের পরিচালক জিয়ার্ট ক্যাপেলিয়ার শুক্রবার জানিয়েছেন।

তিনি শুক্রবার এক সংবাদ সম্মেলনে জানান, আমরা সরকারের কাছ ৪ মার্চ, রোববার প্রায় ১ লাখ ৮০ হাজার অবরুদ্ধ বাসিন্দার জন্য ত্রাণ পাঠাবার ক্ষেত্রে সবুজ সংকেত পেয়েছি। এটি খুবই ভালো ইঙ্গিত। আমরা ইতোমধ্যেই প্রস্তুতি গ্রহন শুরু করে দিয়েছি। তবে আরও ৪ লক্ষাধিক অবরুদ্ধ বাসিন্দাদের জন্য ত্রাণ পাঠাবার ক্ষেত্রে ও প্রায় ১ হাজার গুরুতর অসুস্থ লোককে জরুরী ভিত্তিতে চিকিৎসা প্রদানের জন্য সেখান সরিয়ে নেয়ার ক্ষেত্রে আমরা সরকারের সাথে এখনও কোনো সমঝোতায় পৌছতে পারিনি।

সিরিয়ার রাজধানী দামেস্কের বিদ্রোহী নিয়ন্ত্রীত পূর্বাঞ্চলীয় ঘৌতা ২০১৩ সাল সরকারপন্থীদের দখলে রয়েছে। সম্প্রতি কয়েক মাস ধরে সরকারী বাহিনী কর্তৃক নিরাপত্তা ব্যবস্থা বেশ জোরদার করার ফলে সেখানে খাদ্য, পানি, চিকিৎসা ও বিদ্যুৎ সরবরাহ সহ প্রায় সব ধরনের সাহাজ্য প্রবেশ বন্ধ গেছে। সেখানে অবস্থানকৃত বিদ্রোহীরা ভেতর সরকারী বাহিনীর উদ্দেশ্যে মর্টার শেল নিক্ষেপ করছে, এর বিপরীতে সরকারী বাহিনীও রুশ সরকারের সহায়তায় তীব্র পাল্টা পাল্টা হামলা চালাচ্ছে।

এর ফলে সবচেয়ে বেশী ক্ষতির শিকার হচ্ছে সেখানে বসবাসকৃত বেসামরিক জনগণ। গত ১৩ দিনের সহিংসতায় সেখানে ৬৭৪ জন বেসামরিক লোকের মৃত্যু হয়েছে। জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদ সিরিয়া সরকারকে ৩০ দিনের জন্য যুদ্ধবিরতির প্রস্তাব প্রদান করেছে।