ফরিদপুরে ভয়াবহ অগ্নিকান্ড, ৮টি দোকান পুড়ে ছাই

ফরিদপুরের চরভদ্রাসন উপজেলার গাজীরটেক ইউনিয়নের হাজিগঞ্জ বাজারে মঙ্গলবার ৩ টার দিকে ভয়াবহ অগ্নিকান্ডে আটটি দোকান পুড়ে ছাই হয়ে গেছে। ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ প্রায় এক কোটি টাকা।

প্রত্যক্ষদর্শী ব্যবসায়ী মোস্তাক হোসেন বলেন, “দোকান হতে বাজারের মধ্যে যাওয়ার জন্য বের হইছি হঠাৎ দেখি আগুনসহ পেট্রোল ভর্তি একটা ড্রাম রাস্তায় ফেলা। আমি একটি দোকানে থাকা আগুন নিভিয়ে ফেলি কিন্তু রাস্তার আগুন থেকে পুনরায়ায় দোকানে ছড়িয়ে থাকা পেট্রোলে আগুন লেগে যায়।”

জানা যায়, গত বছর মার্চ মাসে বিপুল কুমার দাস(লক্ষুদাস) এর হার্ডওয়ারের দোকান হতে পেট্রোল ও থিনারের ড্রামে আগুন ধরে বারটি দোকান ভষ্মিভূত হয়। এ বছরও একই দোকান হতে একই ঘটনার সূত্রপাত ঘটে। স্থানীয় লোকজন আগুন নিয়ন্ত্রণে আনার চেষ্টা করতে থাকে। খবর পেয়ে ফরিদপুর ফায়ার সার্ভিসের দুই ইউনিট দমকল কর্মী এসে প্রায় ত্রিশ মিনিট চেষ্টার পর আগুন নিয়ন্ত্রণে আনতে সক্ষম হয়। ঘটনার পর লক্ষু গা ঢাকা দিয়েছে বলে জানা যায়। আগুন লাগার সঠিক কারণ জানা যায়নি। একাধিক ব্যাবসায়ী আগুন ধরার বিষয়টি নিয়ে লক্ষুর কোন স্বার্থ জড়িত থাকতে পারে বলে সন্দেহ প্রকাশ করেন। তারা ঘটনার সঠিক তদন্ত করে ব্যাবস্থা গ্রহণের দাবী জানান।

অগ্নিকান্ডে ক্ষতিগ্রস্থ অন্যান্যরা হলেন সাধন রায়, শাহীন খন্দকার, মুরাদ ভূঈয়া, আলী আকবর, শামীম মন্ডল, লোকমান হোসেন, শাহিন মোল্যা। উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান কাউসার হেসেন বলেন, একটি হার্ডওয়ার, দুটি মোবাইল সার্ভিসিং, একটি ঔষুধের দোকান, বরফ কল একটি, একটি জুতার দোকান ও একটি মটর পার্সের প্রায় এক কোটি টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। খবর পেয়ে ফরিদপুরের অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিট্রেট মিজানুর রহমান, চরভদ্রাসন উপজেলা নির্বাহি অফিসার কামরুন নাহার, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান কাউসার হোসেন, গাজীরটেক ইউপি চেয়ারম্যান মো: ইয়াকুব আলী ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।

হারুন-অর-রশীদ, ফরিদপুর প্রতিনিধি