পারিশ্রমিকের রজনীকান্তকেও ছাপিয়ে গিয়েছিলেন শ্রীদেবী!

শুধু বলিউড নয়, শ্রীদেবীর স্টারডমের চমক দেখেছে গোটা দক্ষিণ ভারত। তামিল, তেলুগু, মলয়ালম ভাষাতে একাধিক ছবিতে অভিনয় করেছেন দেশের প্রথম মহিলা সুপারস্টার শ্রীদেবী। এম জি আর থেকে কমল হাসান, রজনীকান্তের মতো একাধিক দক্ষিণী তারকার সঙ্গে অভিনয় করেছেন তিনি। একটা সময়ে জয়ললিতার সঙ্গেও শিশু শিল্পীর ভূমিকায় দেখা গিয়েছিল শ্রীদেবীকে অভিনয় করতে।

দক্ষিণ ভারতে রজনীকান্ত এই মুহুর্তে একমেব অদ্বিতীয় তারকা! তাঁর ধারে কাছে জনপ্রিয়তায় কেউ নেই। তবে বহু বছর আগে রজনীকান্তের এরকম জনপ্রিয়তা ছিলনা। ১৯৭৬ সালে কমল হাসান ও শ্রীদেবীর সঙ্গে তিনি ‘মন্দুরু মুদিচু’ ছবিতে অভিনয় করেন। কমল হাসান ততদিনে দক্ষিণী ছবির জগতে প্রতিষ্ঠিত স্টার।

রজনীকান্ত ততদিনে নবাগত। আর এই জন্যই ‘মন্দুরু মুদিচু’ ছবিতে অভিনয়রে জন্য রজনীকান্তের থেকে বেশি পারিশ্রমিক পান শ্রীদেবী। দক্ষিণের ‘কৌন বনেগা ক্রোড়পতি’ অনুষ্ঠানে গিয়ে এই ঘটনার কথা একবার জানিয়েও ছিলেন শ্রীদেবী। সেই অনুষ্ঠানের সঞ্চালক প্রকাশ রাজের এক প্রশ্নের উত্তরে তিনি বলেন, ‘মন্দুরু মুদিচু’ ছবির জন্য় তিনি পারিশ্রমিক হিসাবে পেয়েছিলেন ৫ হাজার টাকা, কমল হাসান পেয়েছিলেন ৩০ হাজার টাকা, আর রজনীকান্ত পেয়েছিলেন ২ হাজার টাকা ।

সময় চলে যায়, কিন্তু কিছু অবাক করা স্মৃতি মনে গেঁথে থাকে। এই ঘটনাও শ্রীদেবীর জীবনে সেরকমই ছিল। দক্ষিণের ফিল্ম থেকে বলিউডে দাপটে অভিনয় করা অভিনেত্রী শ্রীদেবীর গোটা জীবন চলচ্চিত্রের ঔজ্জ্বল্য়ে মোড়া ছিল। আর এই ঘটনাটিও তারই এক উদাহরণ।