পূর্ব গৌতায় রাসায়নিক হামলা, নিহত ১

সিরিয়ায় রাসায়নিক হামলার ঘটনা ঘটেছে বলে পশ্চিমা গণমাধ্যমে খবর বের হয়েছে। সিরিয়ার রাজধানীর কাছে পূর্ব গৌতায় এই ঘটনা ঘটেছে। উগ্র সন্ত্রাসীরা ওই এলাকায় গ্যাস হামলার পরিকল্পনা করছে বলে রাশিয়া হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করার পর এই হামলার খবর বের হলো। রাশিয়া আগেই বলেছে, সন্ত্রাসীরা এ হামলা করে সিরিয়ার সরকারের ওপর দোষ চাপাবে।

সন্ত্রাসী সূত্রের বরাত দিয়ে খবর বের হয়েছে, গতকাল আশ-শাইফুনিয়া এলাকার কয়েকজন ব্যক্তির মধ্যে ক্লোরিন গ্যাসে আক্রান্ত হওয়ার লক্ষণ দেখা গেছে এবং একটি শিশুও মারা গেছে। ব্রিটেনভিত্তিক কথিত মানবাধিকার সংস্থা সিরিয়ান অবজারভেটরি ফর হিউম্যান রাইটস দাবি করেছে, পূর্ব গৌতার একটি এলাকায় সিরিয়ার বিমান থেকে হামলা করার পর ১৪ ব্যক্তি শাসকষ্টে ভুগছে। এ সংস্থাটি আগে থেকেই সন্ত্রাসীদের সমর্থক বলে পরিচিত। বার্তা সংস্থা রয়টার্সও সন্ত্রাসী সূত্রের বরাত দিয়ে বলেছে, অন্তত ১৮ ব্যক্তিকে অক্সিজেন মাস্ক দিয়ে চিকিৎসা করানো হয়েছে। তবে সিরিয়ার সরকার কোনো ধরনের রাসায়নিক হামলার কথা অস্বীকার করেছে।

শুধু তাই নয়, মার্কিন প্রভাবে জাতিসংঘ তদন্ত দল ঘটনাস্থলে না গিয়েই সিরিয়া সরকারের বিরুদ্ধে রাসায়নিক হামলার অভিযোগের পক্ষে প্রতিবেদন দিয়েছে। রাসায়নিক হামলার অজুহাত তুলে আমেরিকা দীর্ঘদিন ধরে সিরিয়া সরকারের বিরুদ্ধে হামলা চালানোর ষড়যন্ত্র করছে। এর আগেও সিরিয়া সরকারের বিরুদ্ধে এ ধরনের অভিযোগ তোলা হয়েছে বেশ কয়েকবার।