যুক্তরাষ্ট্রে প্রাকৃতিক দুর্যোগের প্রকোপে ৪ জনের মৃত্যু

যুক্তরাষ্ট্রের নিম্ন মিসিসিপি উপত্যকা থেকে শুরু করে ওহাইও পর্যন্ত ব্যাপক ঝড় ও বৃষ্টিতে চলতি বন্যা আরও বাড়ার আশঙ্কা দেখা দিয়েছে। বন্যার কারণে ওই এলাকা থেকে ইতোমধ্যেই অনেক বাসিন্দাকে সরিয়ে নেওয়া হয়েছে। এতে শনিবার পর্যন্ত অন্তত চার জনের মৃত্যু হয়েছে বলে জানিয়েছে বার্তা সংস্থা রয়টার্স।

রোববার সকালে আরকানসাস থেকে ওহাইও উপত্যকা পর্যন্ত ঝড়ের পাশাপাশি শিলা বৃষ্টি, প্রবল বাতাস ও টর্নেডো হতে পারে এবং দুই থেকে চার ইঞ্চি পর্যন্ত বৃষ্টিপাত হতে পারে বলে আবহাওয়া পূর্বাভাসে বলা হয়েছে। ইন্ডিয়ানা অঙ্গরাজ্যের গভর্নর এরিক হলকম্ব ব্যাপক বন্যায় ক্ষয়ক্ষতিজনিত কারণে ১১টি কাউন্টিতে জরুরি অবস্থা জারি করেছেন। অঙ্গরাজ্যটির উত্তরাঞ্চলীয় কানকাকি নদীর পানি বৃদ্ধি পেয়ে এসব এলাকায় বন্যা দেখা দিয়েছে। গভর্নর জন কাসিচ ওহাইও অঙ্গরাজ্যের ১৭টি কাউন্টিতে ও অঙ্গরাজ্যের দক্ষিণাংশে বন্যা ও ঝড়ের ক্ষয়ক্ষতির কারণে জরুরি অবস্থা জারি করেছেন।

টেলিভিশন স্টেশন ডব্লিউকেআরএন এর প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, কেনটাকির লোগানের নিকটবর্তী গ্রামীণ এলাকায় নিজ বাড়িতে ৭৯ বছর বয়সী এক বৃদ্ধা নিহত হয়েছেন, তার বাড়িটি ঝড়ের কবলে পড়ায় এ ঘটনা ঘটেছে বলে ধারণা করা হচ্ছে।এর পাশাপাশি গত কয়েকদিনের বন্যায় এক বছর বয়সী একটি শিশুসহ অন্তত তিন জনের মৃত্যু হয়েছে বলে জানা গেছে। ইলিনয়ে রাস্তার পাশে খাদে পড়ে ডুবে যাওয়া একটি গাড়ি থেকে ৫২ বছর বয়সী এক নারীর মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়। ওকলাহোমায় বন্যার পানিতে গাড়ি ভেসে গিয়ে ৫৩ বছর বয়সী এক ব্যক্তির মৃত্যু হয়েছে। এক বছর বয়সী শিশুটির মৃত্যু হয়েছে মিশিগানে।

গত কয়েকদিন ধরে বন্যার পানি বাড়তে থাকায় এসব এলাকার কয়েকশত লোককে সরিয়ে নেওয়া হয়েছে। বাড়তে থাকা বন্যার পানিতে ওই এলাকাগুলোর ঘরবাড়ি ও রাস্তাগুলো ডুবে গেছে।