টাঙ্গাইলে সিএনজি খাদে পড়ে যাওয়ার ঘটনায় এক যাত্রীর মৃত্যু

টাঙ্গাইল-নাগরপুর সড়কের বেড়াবুচনা নামক স্থানে সিএনজি খাদে পড়ে যাওয়ার ঘটনায় এক যাত্রীর মৃত্যু ও অন্তত ৩জন যাত্রী আহত হয়েছে। রোববার সকাল সাড়ে ৯টার দিকে এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহত শহিদুল ইসলাম দেলদুয়ার উপজেলার দেউলি ইউনিয়নের বাবুপুর গ্রামের নছু মিয়ার ছেলে। টাঙ্গাইল পৌরসভার ৯নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মো. আব্দুর রাজ্জাক বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

প্রত্যক্ষদর্শী ও আহতদের তথ্যে জানা যায়, নিহত শহিদুল ইসলাম সিএনজি যোগে সদর উপজেলার ছিলিমপুর থেকে টাঙ্গাইল শহরে তার কর্মস্থলে যাচ্ছিলেন। তিনি পেশায় একজন দর্জি। সিএনজিটি ৪ যাত্রী নিয়ে বেড়াবুচনা নামক স্থানে এসে পৌঁছালে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে খাদে পড়ে যায়। এসময় তিনি ঘটনাস্থলে নিহত এবং আরো তিনজন আহত হন।

এদিকে সাতক্ষীরায় দুই ট্রাকের মুখোমুখি সংঘর্ষে লিটন হোসেন (৩৫) নামে এক হেলপার নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন আরও তিনজন।

শনিবার রাত ১১টার দিকে সাতক্ষীরা-খুলনা মহাসড়কের তালা উপজেলার কুমিরা কলেজ এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহত লিটন হোসেন ঝালকাঠি জেলার নলছিটি উপজেলার জুরকাটি গ্রামের মৃত খালিদ মৃধার ছেলে।

সাতক্ষীরার পাটকেলঘাটা থানার ওসি মোল্লা জাকির হোসেন জানান, সাতক্ষীরা-খুলনা মহাসড়কের কুমিরা কলেজ এলাকায় দুই ট্রাকের মুখোমুখি সংঘর্ষে চারজন আহত হয়। স্থানীয়রা আহতদের উদ্ধার করে সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালে পাঠান। পথিমধ্যে চালকের সহকারী লিটনের মৃত্যু হয়।