উপবন এক্সপ্রেস লাইনচ্যুত, সিলেটের সঙ্গে সারা দেশের রেল যোগাযোগ বন্ধ

মৌলভীবাজারের সাতগাঁও স্টেশনে আন্তনগর উপবন এক্সপ্রেস ট্রেনের বগি লাইনচ্যুত হওয়ায় সিলেটের সঙ্গে সারা দেশের রেল যোগাযোগ বন্ধ হয়ে গেছে। মৌলভীবাজারের শ্রীমঙ্গল উপজেলার এ স্টেশনে গতকাল বৃহস্পতিবার রাত একটায় ঘটনাটি ঘটে। ট্রেনটিতে অর্থ প্রতিমন্ত্রী এম এ মান্নান ছিলেন বলে জানিয়েছেন শ্রীমঙ্গল রেলওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা। তবে এতে কোনো হতাহতের ঘটনা ঘটেনি।

বাংলাদেশ রেলওয়ের সিলেট বিভাগের সহকারী প্রকৌশলী মুজিবুর রহমান জানান, বৃহস্পতিবার রাত ১টার দিকে শ্রীমঙ্গলের সাঁতগাও স্টেশনের সামনে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

তিনি আরও বলেন, রাতে সাঁতগাও স্টেশন অতিক্রমের পর ট্রেনের ‘পুলিং রড’ ভেঙে লাইনের ‘পয়েন্ট অ্যান্ড ক্রসিং’ এর কয়েকটি ব্লকের মধ্যে পড়ে যায়। এতে ব্লক ভেঙে ট্রেনের ১১টি বগি লাইনচ্যুত হয়। এতে রেললাইনের বেশ কিছু অংশ ভেঙে গেছে।

শ্রীমঙ্গল ও শমশেরনগর স্টেশন সূত্রে জানা যায়, বৃহস্পতিবার রাত একটায় ঢাকাগামী ৭৪০ নম্বর আন্তনগর উপবন এক্সপ্রেস সাতগাঁও স্টেশন অতিক্রম করার মেইন লাইনের ওপর এর ১১টি বগি লাইনচ্যুত হয়। এ ঘটনার পর থেকে শুক্রবার সকাল ৯টা পর্যন্ত সিলেটের সঙ্গে সারা দেশের রেল যোগাযোগ বন্ধ রয়েছে। এর ফলে এ ট্রেনের সহস্রাধিক যাত্রী দুর্ভোগের শিকার হয়।

শ্রীমঙ্গল স্টেশনের কর্মকর্তা শাখাওায়াত হোসেন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, উপবন এক্সপ্রেস ট্রেনের ইঞ্জিন ও একটি বগি ছাড়া ১১টি বগি লাইনচ্যুত হয়। এর ফলে শায়েস্তাগঞ্জসহ বিভিন্ন স্টেশনে সিলেটগামী আন্তনগর উপবন এক্সপ্রেস, উদয়ন এক্সপ্রেস, জালালাবাদ এক্সপ্রেস, সুরমা মেইল ও শমশেরনগরের বিভিন্ন স্টেশনে ঢাকাগামী সুরমা মেইল আটকা পড়েছে। এ অবস্থায় শুক্রবার সকাল ৯টা পর্যন্ত এ পথে টানা ৮ ঘণ্টা রেল যোগাযোগ বন্ধ রয়েছে।

ঘটনাস্থলে কর্মরত রেলওয়ের এসএম (সিগন্যাল মেইনটেন্যান্স) বেলাল হোসেন আজ শুক্রবার মোবাইলে প্রথম আলোকে বলেন, উদ্ধারকারী ট্রেন ও কর্মচারীরা এসে এ পর্যন্ত তিনটি বগি উদ্ধার করেছেন। বাকি বগিগুলো উদ্ধারে অনেক সময় লাগবে। তিনি বলেন, কমপক্ষে আরও চার থেকে পাঁচ ঘণ্টা লাগবে বাকি বগি উদ্ধার করতে।