বাংলাদেশে দুর্নীতি কমেছেঃ টিআইবি

জার্মানি ভিত্তিক দুর্নীতি বিরোধী সংস্থা ট্রান্সপারেন্সি ইন্টারন্যাশনালের (টিআইবি) দুর্নীতির ধারণাসূচকে সবচেয়ে দুর্নীতিগ্রস্ত দেশের তালিকায় বাংলাদেশের অবস্থান এবার ২৩তম। গত বছর ১৫তম সূচকে থাকা বাংলাদেশ এবার ৮ ধাপ উন্নতি করেছে। যার মানে দাঁড়ালো বাংলাদেশে এক বছরের ব্যবধানে দুর্নীতি কমেছে। 

বৃহস্পতিবার জার্মানির বার্লিন থেকে সারাবিশ্বে একযোগে প্রকাশিত টিআই-এর ২০১৮ সালের প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে। গত বছর এই সূচকে বাংলাদেশের অবস্থান ছিল ১৫তম। তার আগের বছর ছিল ১৩তম।

সংস্থাটির প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, বাংলাদেশের মতোই সমান স্কোর পেয়েছে আরও পাঁচটি দেশ। এগুলো হলো ক্যামেরুন, গাম্বিয়া, কেনিয়া, মাদারগাস্কা ও নিকারাগুয়া।

দুর্নীতির ধারণাসূচক অনুযায়ী এবার বিশ্বের সবচেয়ে দুর্নীতিগ্রস্ত দেশ সোমালিয়া। অন্যদিকে সবচেয়ে কম দুর্নীতির দেশ নিউজিল্যান্ড। টিআই এর ২০১৭ এ প্রকাশিত দুর্নীতির ধারণা সূচক (করাপশন পারসেপশন ইনডেক্স বা সিপিআই) ২০১৬ অনুযায়ী সূচকের ০-১০০ এর স্কেলে বাংলাদেশে স্কোর এবার ২৮।

টিআইয়ের দেয়া তথ্য বিশ্লেষণ করে দেখা যাচ্ছে, শীর্ষ দুর্নীতিগ্রস্ত দেশের যে তালিকা অর্থাৎ দুর্নীতির ধারণা সূচকের মোট দেশগুলোর মধ্যে নিচের দিকে থাকা দেশের তালিকার বিচারে বাংলাদেশের উন্নতি হয়েছে। পাশাপাশি সার্বিক বিচারেও বাংলাদেশ এগিয়েছে দুইধাপ।

দুর্নীতি সূচকে ভালো থেকে খারাপ, এই তালিকায় এবছর বাংলাদেশের অবস্থান ১৪৩। অথচ এর আগের বছর বাংলাদেশের অবস্থান ছিল ১৪৫। তার আগের বছর যেটি ১৩৯।

তবে টিআইবির প্রধান নির্বাহী ড. ইফতেখারুজ্জামানের দেয়া তথ্য অনুযায়ী, র‍্যাংকিং বাড়ল কি কমলো- এর উপর ধারণা করে দুর্নীতি বাড়ল বা কমল এটা বলা যাবে না।

এখানে স্কোরটাই গুরুত্বপূর্ণ উল্লেখ করে তিনি বলেন, কোন দেশের স্কোর যদি ৪৩ হয়, তাহলে বলা যায় তার মধ্যম পর্যায়ে দুর্নীতি প্রতিরোধ করতে সক্ষম হয়েছে। বাংলাদেশের স্কোর সেখান থেকে অনেক কম, ২৮।