‘কালো পতাকা মিছিলের’ কর্মসূচিতে সংশোধনী

বিএনপি প্রধান বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে সমাবেশের অনুমতি না দেয়ায় রাজধানীতে শনিবারের ঘোষিত ‘কালো পতাকা মিছিলের’ কর্মসূচিতে সংশোধনী এনে পতাকা প্রদর্শনের ঘোষণা দিয়েছে দলটি। তবে নতুন এই কর্মসূচি সারাদেশে পালিত হবে। আগে শুধু রাজধানীতে পালনের কথা ছিল।

বৃহস্পতিবার বিকেলে রাজধানীর নয়াপল্টনে দলটির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ মন্তব্য করেন। এ সময় আগামী শনিবারের কর্মসূচিও ঘোষণা করেন রিজভী।

বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী বলেছেন, উন্নয়নের নামে সরকার জনগণকে প্রহসনের বায়স্কোপ দেখাচ্ছে।

রুহুল কবির রিজভী আরও বলেন, সরকার ভুয়া-সাজানো মামলা দিয়ে বিএনপি নেত্রীকে নির্বাচন থেকে দূরে সরিয়ে রাখতে চাইছে। যত অপকৌশলই করা হোক না কেন, খালেদা জিয়াকে নির্বাচন থেকে দূরে রাখা যাবে না।

তিনি আরও বলেন, খালেদা জিয়াকে কারাগারে পাঠানোর পর সারাদেশের মানুষ সরকারের বিরুদ্ধে যেভাবে প্রতিবাদী হয়ে উঠছে তাতে অবৈধ এ সরকারের ভীত কেঁপে উঠেছে। খালেদা বিহীন নির্বাচন জনগণই প্রতিহত করবে।

সরকার সংঘাতের উস্কানি দিচ্ছে এমন মন্তব্য করে রিজভী বলেন, তারা সংঘাতময় রাজনৈতিক পরিবেশ সৃষ্টি করে দেশকে অনিশ্চয়তার দিকে ঠেলে দিতে চায়। জাতীয়তাবাদী শক্তির কাছে তাদের অবৈধ ক্ষমতার সিংহাসন ভূ-তলে শায়িত হবে।

এদিকে ২১ ফেব্রুয়ারি মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষ্যে শুক্রবার বিকাল ৩টায় রাজধানীর ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশন মিলনায়তনে আলোচনার সভার আয়োজন করেছে বিএনপি। এতে বিএনপির শীর্ষ পর্যায়ের নেতারা থাকবেন।

সংবাদ সম্মেলনে বিএনপি নেতাদের মধ্যে আবুল খায়ের ভূঁইয়া, সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, তাইফুল ইসলাম টিপু, বেলাল আহমেদ, মুনির হোসেন প্রমুখ উপস্থিতি ছিলেন।