‘আজান হচ্ছে, আমি আজানের পরই আমার বক্তব্য শুরু করছি’

আজ বৃহস্পতিবার বেলা ১১টার দিকে তিনি আকাশপথে ঢাকা থেকে নাটোরের বাগাতিপাড়া উপজেলার দয়ারামপুরের কাদিরাবাদ সেনানিবাসে এসে উপস্থিত হন। টানা দুই মেয়াদে ক্ষমতাসীন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তৃতীয়বারের মতো রাজশাহীতে সফর করছেন। বিকেলে রাজশাহী সরকারি মাদরাসা মাঠে জেলা ও মহানগর আওয়ামী লীগ আয়োজিত জনসভায় বক্তব্য প্রদানকালে আজানের সময় বিরতি নেন প্রধানমন্ত্রী।

আছরের আজানের সময় বক্তব্য দেয়া থেকে বিরত থাকলেন আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এর আগে বক্তব্যের শুরুতেই একবার জিজ্ঞেস করেন, ‘আজান দিচ্ছে?’ তখন প্রধানমন্ত্রী আশপাশে থাকা নেতাদের কথায় আশ্বস্ত হয়ে আবারও বক্তব্য শুরু করেন। পরে নিজেই যখন আজান শুনতে পান তখন বলেন, ‘আজান হচ্ছে, আমি আজানের পরই বক্তব্য শুরু করছি’।

আছরের আজান শেষ হওয়ার পর পুনরায় বক্তব্য দেয়া শুরু করেন প্রধানমন্ত্রী। রাজশাহীর ঐতিহাসিক মাদরাসা ময়দানে ভাষণ দিচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী। টানা দুই মেয়াদে প্রধানমন্ত্রী থাকাকালে রাজশাহীতে এটি পঞ্চম সফর আওয়ামী লীগ সভানেত্রীর।

২০০৯ সালে প্রধানমন্ত্রী হওয়ার পর শেখ হাসিনা প্রথম রাজশাহী সফর করেন ২০১১ সালের ২৪ নভেম্বর। ওই দিন শেখ হাসিনা রাজশাহীর ঐতিহাসিক মাদরাসা ময়দানে আওয়ামী লীগের জনসভায় ভাষণ দেন। প্রায় সাত বছর পর আজ শেখ হাসিনা ওই মাঠের জনসভায় প্রধান অতিথির ভাষণ দিচ্ছেন।