ইরানে রক্তক্ষয়ী সহিংসতা, নিহত ৩

সোমবার ইরানে তেহরানের উত্তর অংশের একটি থানার কাছে সম্প্রদায়ের সদস্যদের সঙ্গে সংঘর্ষে তিন পুলিশ কর্মকর্তার নিহত হওয়ার খবর দিয়েছে দেশটির কর্তৃপক্ষ। বিবিসি জানায়, দরবেশ সম্প্রদায়ের সদস্যদের বিক্ষোভটি রক্তক্ষয়ী সহিংসতায় পরিণত হয়, যখন একটি বাস পুলিশ সদস্যদের আঘাত করে হত্যা করে।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়া এক ভিডিওতে চলন্ত একটি সাদা বাসকে একদল পুলিশের ওপর উঠে যেতে দেখা গেছে; এরপরই পুলিশের লাঠিচার্জের শব্দ শোনা যায়। ঘটনার পর বাস চালক ও নয় বিক্ষোভকারীকে আটক করা হয়েছে বলে ইরান পুলিশের এক মুখপাত্র জানিয়েছেন। সংঘর্ষের আগের এক ভিডিওতে দরবেশ সম্প্রদায়ের সদস্যদের থানার সামনে বসে বিক্ষোভ করতে দেখা গেছে। আটক এক সদস্যের মুক্তির দাবিতে ওই বিক্ষোভ করছিলেন তারা।

টুইটারে পাওয়া অন্য এক ভিডিওতে কিছু আন্দোলনকারীকে রাস্তার মাঝ বরাবর বিক্ষোভ করতে দেখা গেছে, বাকিরা রাস্তাতেই বসে ছিলেন, হাতে ছিল আটক দরবেশের আলোকচিত্র। এ সময় তারা ‘আল্লাহু আকবর’ বলে স্লোগান দিচ্ছিলেন।

মানবাধিকার সংগঠনগুলোর অভিযোগ, সুন্নি মতাদর্শের সুফি দরবেশরা ইরানের শিয়া শাসন কাঠামোতে চরমভাবে নির্যাতিত। সোমবারের ওই সংঘর্ষের ঘটনাকে ‘মারাত্মক ও রক্তাক্ত’ অ্যাখ্যা দিয়েছে স্থানীয় একটি গণমাধ্যম; দরবেশদেরকে অভিহিত করেছে ‘বিশেষ গোষ্ঠী’। দরবেশরা জানান, তাদের প্রতিবাদ ছত্রভঙ্গ করতে পুলিশ কাঁদানে গ্যাস ছোড়ে। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমের এক ভিডিওতে দাঙ্গা পুলিশকে বিক্ষোভকারীদের দিকে তেড়ে যেতেও দেখা গেছে।