রোহিঙ্গা সঙ্কট মোকাবেলায় সহায়তা অব্যাহত রাখবে যুক্তরাষ্ট্র

রোহিঙ্গা সঙ্কট মোকাবেলায় বাংলাদেশকে রাজনৈতিক ও মানবিক সহায়তা দেওয়া অব্যাহত রাখার আশ্বাস দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। হোয়াইট হাউসের জাতীয় নিরাপত্তা কাউন্সিলের দক্ষিণ ও মধ্য এশিয়া বিষয়ক জ্যেষ্ঠ পরিচালক এবং যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্টের উপ-সহকারী লিসা কার্টিসের সঙ্গে গত শনিবার ওয়াশিংটনে পররাষ্ট্রসচিব মো. শহিদুল হকের এক বৈঠকে এ আশ্বাস দেওয়া হয়।

একই সঙ্গে মিয়ানমার থেকে বাস্তুচ্যুত হয়ে ১০ লাখেরও বেশি রোহিঙ্গাকে আশ্রয় দেওয়ায় বাংলাদেশকে প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের প্রশংসার কথা অবহিত করেন তিনি। ওয়াশিংটনে বাংলাদেশ দূতাবাস জানায়, পররাষ্ট্রসচিব মো. শহিদুল হকের অনুরোধে লিসা কার্টিস যুক্তরাষ্ট্র প্রশাসনের ইন্দো-প্যাসিফিক কৌশলের বিভিন্ন দিক ব্যাখ্যা করেন। বৈঠকে দ্বিপক্ষীয়, আঞ্চলিক ও বৈশ্বিক নিরাপত্তা ইস্যুতেও আলোচনা হয়।

যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্র দফতরের দক্ষিণ ও মধ্য এশিয়া বিষয়ক ব্যুরোর প্রিন্সিপাল ডেপুটি অ্যাসিস্ট্যান্ট সেক্রেটারি অ্যালিস ওয়েলসের সঙ্গেও বৈঠক করেন পররাষ্ট্র সচিব। তিনি পররাষ্ট্র সচিবকে জানান, যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্রমন্ত্রী রেক্স টিলারসন রোহিঙ্গা ইস্যুতে সক্রিয় আছেন। মিয়ানমার থেকে আসা বিপুলসংখ্যক রোহিঙ্গাকে আশ্রয় দেওয়ায় টিলারসন বাংলাদেশের জোরালো প্রশংসা করেছেন।

উল্লেখ্য, মিয়ানমারে নিপীড়নের মুখে পালিয়ে আসা এক হাজার ৬৭৩টি পরিবারের ৮ হাজার ৩২ রোহিঙ্গার তালিকা সম্প্রতি মিয়ানমারকে দিয়েছে বাংলাদেশ। রোহিঙ্গাদের ফিরিয়ে নেয়ার (প্রত্যাবাসন) প্রাথমিক উদ্যোগ হিসেবে বাংলাদেশ ও মিয়ানমারের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী পর্যায়ের বৈঠকে এ তালিকা দেয়া হয়।