‘তিনটি সুখবর দিলাম, আরেকটি পরে দেব’

রোম সফর শেষে দেশে ফিরে সংবাদ সম্মেলনে এসেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। সোমবার গণভবনের ব্যাংকোয়েট হলে এ সংবাদ সম্মেলনে হয়। শেখ হাসিনা বলেন, তিনটি সুখবর দিলাম; আরেকটি আছে, সেটা পরে দেব।

প্রধানমন্ত্রীর তিনটি সুখবর হচ্ছে- বাংলাদেশ থেকে যুক্তরাজ্যে কার্গো বিমান পরিবহনে নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার, আগাম মার্চের যেকোনো সময় বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট মহাকাশে যাবে, ফোর জি যুগে বাংলাদেশের যাওয়া। একে তথ্য প্রযুক্তিতে ‘মাইলফলক’ হিসেবে অভিহিত করেন তিনি। মোটামুটি ১০ মিনিটে লিখিত বক্তব্য শেষ করে রসিকতাচ্ছলে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘শেষ, এবার যাই তাহলে।’ এসময় হলে উপস্থিত সবাই হেসে উঠেন।

শেখ হাসিনা বলেন, রোহিঙ্গা শরণার্থী সঙ্কট অবসানে মিয়ানমারের উপর আন্তর্জাতিক চাপ অব্যাহত রাখতে ক্যাথলিক ধর্মগুরুকে আহ্বান জানিয়েছেন তিনি। প্রধানমন্ত্রী আরো বলেন, আগে মোবাইল ফোনই সহজলভ্য ছিল না। ১৯৯৬ সালে আমরা এসে মোবাইল ফোন সহজলভ্য করি। ইতোমধ্যে আমরা থ্রিজির যুগে প্রবেশ করেছি। আর আজ থেকে আমরা ফোরজির যুগে প্রবেশ করছি।

তিনি বলেন, আমাকে যখন জেলে নিয়ে গেল আমি জিল্লুর রহমানকে ভারপ্রাপ্ত সভাপতি করলাম। আমি আমার বোনকেও করিনি, ছেলেকেও করিনি। বিএনপিতে কী একটা নেতাও দেশে নেই, যাকে ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান করতে পারত। খালেদা জিয়ার রায় এবং বিএনপির গঠনতন্ত্র সংশোধন নিয়ে শেখ হাসিনা বলেন, কোর্ট রায় দিয়েছে, আমাদের কিছু করার নেই। এরপরও দোষ আসে আমাদের উপর।