ভারতের ব্যাংকে সাইবার হামলা, ২০ লাখ ডলার চুরি

ভারতের সিটি ইউনিয়ন ব্যাংক জানিয়েছে, সুইফট ব্যবস্থা ব্যবহার করে তিনটি অননুমোদিত লেনদেনের মাধ্যমে তাদের ব্যাংক থেকে প্রায় ২০ লাখ ডলার চুরি করা হয়েছে। রবিবার ব্যাংকটির পক্ষ থেকে এই তথ্য জানানো হয়েছে।

শনিবার তিনটি ভুয়া রেমিটেন্স আদান-প্রদানের খবর প্রকাশিত হওয়ার ব্যাংকের পক্ষ থেকে এই বিষয়টি স্বীকার করা হলো। দুবাই, তুরস্ক ও চীনে এসব অর্থ পাঠানো হয়েছে। ব্যাংকটির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা এন.কামাকোদি হ্যাকিং ও চুরির এই ঘটনাটিকে একাধিক দেশের ষড়যন্ত্র বলে আখ্যায়িত করেছেন। তিনি জানান, চুরির ঘটনাটি তাদের ঋণদাতা প্রতিষ্ঠান এখনও তদন্ত করছে।

কামাকোদি বলেন, আন্তর্জাতিক সাইবার অপরাধীদের দ্বারা এটা একটা সাইবার হামলা। ব্যাংকটির পক্ষ থেকে দাবি করা হয়েছে, তারা দুবাইভিত্তিক এক ব্যক্তির নিউ ইয়র্কের স্ট্যান্ডার্ড চার্টাড ব্যাংকে পাঠানো প্রায় ৫ লাখ ডলারের একটি লেনদেন আটকে দেওয়া হয়েছে। দ্বিতীয় লেনদেন চীনভিত্তিক ব্যাংক অব আমেরিকার নিউ ইয়র্কের একটি অ্যাকাউন্টে পাঠানো হয়েছে। এই ঘটনার পর অভ্যন্তরীন নজরদারী ব্যবস্থা আরও শক্তিশালী করা হচ্ছে বলে জানিয়েছে ব্যাংকটি।

২০১৬ সালে বাংলাদেশ ব্যাংকের ৮১ মিলিয়ন ডলার চুরির পর ব্রাসেলসভিত্তিক সুইফট’র পক্ষ থেকে ব্যাংকগুলোর নেটওয়ার্কের নিরাপত্তা জোরদার করার আহ্বান জানানো হচ্ছে। ভারতীয় ব্যাংকিং নিরাপত্তা বিশেষজ্ঞরা মনে করেন, সুইফট ব্যবস্থার ওপর নির্ভরশীল ব্যাংকগুলোর উচিত আরও সতর্ক হওয়া। শতাধিক ভারতীয় আর্থিক প্রতিষ্ঠান কেন্দ্রীয় ব্যাংকের মাধ্যমে সুইফটের সঙ্গে সংযুক্ত।