রুদ্ধদ্বার বৈঠক কি ফলপ্রসূ ও খোলামেলা ছিল?

আফরিনে চলমান অভিযান নিয়ে যখন দুই ন্যাটো সদস্যের মধ্যে উত্তেজনা বিরাজ করছে তখন তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রজব তাইয়্যেব এরদোগান ও আমেরিকার পররাষ্ট্রমন্ত্রী রেক্স টিলারসনের মধ্যে বৈঠক হয়েছে। মার্কিন সমর্থিত কুর্দি গেরিলা গোষ্ঠী ওয়াইপিজি’র বিরুদ্ধে সামরিক অভিযানের মধ্যেই এ বৈঠক হলো।

তুরস্কের প্রেসিডেন্ট প্রাসাদ থেকে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একটি সূত্র জানিয়েছে, তুর্কি প্রেসিডেন্ট ও মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী দুই দেশের মধ্যে সৃষ্ট অচলাবস্থা নিরসনের উপায় নিয়ে আলোচনা করেন যেই আলোচনা তিন ঘণ্টার বেশি সময় ধরে চলেছে বলে জানা যায় ওই সূত্র থেকে। সূত্র আরো জানিয়েছে, রুদ্ধদ্বার এ বৈঠকে টিলারসনকে এরদোগান সিরিয়ায় তার মূল উদ্দেশ্য ও অগ্রাধিকারের কথা তুলে ধরেছেন। পাশাপাশি ইরাক পরিস্থিতি ও আঞ্চলিক ঘটনাবলী এবং সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে লড়াই নিয়ে আলোচনা করেন তারা। বৈঠক সম্পর্কে টিলারসনের সঙ্গে তুরস্ক সফররত মার্কিন পররাষ্ট্র দপ্তরের এক মুখপাত্র জানিয়েছেন, এরদোগান ও টিলারসনের বৈঠক ছিল ‘ফলপ্রসূ ও খোলামেলা’।

কুর্দি গেরিলা গোষ্ঠী ওয়াইপিজি-কে শত্রু মনে করে তুরস্ক। বৈঠকের আগে তুরস্কের প্রতিরক্ষামন্ত্রী নূরুদ্দিন চানিক্লি বেলজিয়ামের রাজধানী ব্রাসেলেসে সাংবাদিকদের বলেছিলেন, “তুরস্ক চায় আফরিন এলাকা থেকে কুর্দি গেরিলাদেরকে বহিষ্কার করুক আমেরিকা।” অন্যদিকে, আমেরিকা দাবি করে আসছে- উগ্র দায়েশের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে কার্যকর শক্তি হচ্ছে ওয়াইপিজি।