‘বিএনপির আমলে দেশের অর্থনীতি ধ্বংস হয়েছে’

বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টির সভাপতি ও সমাজ কল্যাণ মন্ত্রী রাশেদ খান মেনন বলেছেন, ‘দেশের মূল অর্থনীতি ধ্বংস হয়েছে বিএনপির আমল। অথচ সেটা নিয়ে আমরা কেউ কথা বলছি না। শুধু তাই নয় পাট ধ্বংসের শুরুও হয় বিএনপির আমলে। অথচ খালেদা জিয়ার মুক্তির জন্য দেশে আজ আন্দোলন হচ্ছে, পত্রপত্রিকায় লেখালেখি হচ্ছে, কিন্তু পাটের জন্য কেউ আন্দোলন করছে না।’

শুক্রবার জাতীয় প্রেসক্লাবে এক স্মরণসভায় রাশেদ খান মেনন এসব কথা বলেন। জাতীয় শ্রমিক ফেডারশনের সাবেক সভাপতি হাফিজুর রহমান ভূইয়ার প্রথম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে এ স্মরণসভার আয়োজন করে জাতীয় শ্রমিক ফেডারেশন।

রাশেদ খান মেনন বলেন, ‘বেগম খালেদা জিয়ার সময়ে পাট রক্ষার দাবিতে আমরা আন্দোলন করেছি। বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তখন বিরোধী দলীয় নেত্রী। তিনি সংসদে দাঁড়িয়ে বলেছিলেন, পাট কল বন্ধ করা যাবে না, পাট কল বন্ধ করলে দেশের মূল অর্থনীতি ধ্বংস হয়ে যাবে। কিন্তু তারা (বিএনপি) দেশের সব মিল বন্ধ করে দেয় এবং মিল বন্ধ ও পাট রক্ষার দাবিতে আন্দোলরত শ্রমিকদের ওপরে গুলি চালিয়ে ১৭ জন শ্রমিক নেতাকে হত্যা করে।’

মেনন বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কয়েকটা মিল চালু করলেও তা এখন ভালোভাবে চলছে না। কারণ শ্রমিকদের বেতন ভালোভাবে দিচ্ছে না। কারো কারো এক দেড় মাসের বেতন বাকি রাখছে মালিক পক্ষ। এভাবে বেতন না দিলে শ্রমিকরা কাজ করবে কীভাবে।’

মন্ত্রী বলেন, ‘বাংলাদেশে হাজার হাজার টন পাট মওজুদ থাকলেও তা রপ্তানি করার কোনো ব্যবস্থা করা হচ্ছে না। অর্থ মন্ত্রণালয়কে বারবার অনুরোধ করেছি। কিন্তু পাটের জন্য কোনো অর্থ তারা ছাড়বে না। অর্থ ছাড়ে তখন যখন দেখা যায় পাটের সময় শেষ। আমাদের পাট ভারত হয়ে ভিয়েতনামে যায় কিন্তু আমরা সরাসরি রপ্তানি করতে পারি না। এ রপ্তানি করার জন্য দেশে কারো কোনো উদ্যোগ নেই।’