তিক্ত সম্পর্কের মাঝেই ভারতে খেলার সিদ্ধান্ত নিল পাকিস্তান

দুই দেশের তিক্ত সম্পর্কের মাঝেই ভারতে খেলতে আসছে পাকিস্তান। চলতি বছরের শেষেই ভারতে পা রাখবেন পাকিস্তানের খেলোয়াড়রা। নভেম্বর-ডিসেম্বর ভুবনেশ্বরে হকি বিশ্বকাপে খেলতে দেখা যাবে পাকিস্তান হকি দলকে।

দু’দেশের তিক্ত রাজনৈতিক সম্পর্কের কারণে পাকিস্তানের সঙ্গে দ্বি-পাক্ষিক ক্রিকেট সিরিজ বাতিল করেছে বিসিসিআই। কারণ পাকিস্তানের সঙ্গে খেলার অনুমতি দেয়নি ভারত সরকার। এরই প্রতিবাদ হিসেবে ভারতে আসন্ন হকি বিশ্বকাপে না খেলার সিদ্ধান্ত নিয়েছিল পাকিস্তান। কিন্তু সেই সম্ভাবনা উড়িয়ে ভারতের মাটিতে বিশ্বকাপ খেলার সিদ্ধান্ত নিল পাকিস্তান হকি বোর্ড। শেষবার ভারতের মাটিতে হকি বিশ্বকাপ হয়েছিল ২০১০। তখনও পাকিস্তান খেলেছিল।

২০১৪ হকি বিশ্বকাপে কোয়ালিফাই করেনি পাকিস্তান৷ সেবার বিশ্বকাপ হয়েছিল নেদারল্যান্ডসের হাগে। কিন্তু লন্ডনে হকি ওয়ার্ল্ড লিগের সেমিফাইনালে ওঠে বিশ্বকাপের যোগ্যতা অর্জন করে পাকিস্তান। চলতি বছর হকি বিশ্বকাপ হয়ে ভুবনেশ্বরে ২৮ নভেম্বর থেকে ১৬ ডিসেম্বর। ঘরের মাঠে বিশ্বকাপে ভারতীয় হকি দলের উপর প্রত্যাশা সমর্থকদের। কারণ ১৯৭৫ সালের পর বিশ্বকাপে সোনা পায়নি ভারত।

পাকিস্তান কিন্তু এ ব্যাপারে ভারতে অনেক পেছনে ফেলেছে। বিশ্বকাপে সবচেয়ে সফল দল পাকিস্তান। চারবার সোনা ছাড়াও দু‘বার রানার্স হয়ে রুপা জিতেছে ভারতের চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী দেশটি। ১৯৭১, ৭৮, ৮২ ও ৯২ বিশ্বকাপে চ্যাম্পিয়ন হয়েছে পাকিস্তান।