চীন ও দক্ষিণ কোরিয়াকে ট্রাম্পের হুমকি!

ট্রাম্প গতকাল (মঙ্গলবার) হোয়াইট হাউজে রিপাবলিকান ও ডেমোক্র্যাট দলের কয়েকজন কংগ্রেস সদস্যের সঙ্গে বৈঠকে চীন ও দক্ষিণ কোরিয়ার বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেয়ার হুমকি দিয়েছেন। এর মধ্যে তিনি চীনের বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞা আরোপসহ  দক্ষিণ কোরিয়ার সঙ্গে মুক্ত বাণিজ্য চুক্তি বাতিল করার হুমকি দিয়েছেন। 

আমেরিকার স্টিল ও অ্যালুমিনিয়াম শিল্পকে চীন ক্ষতিগ্রস্ত করার চেষ্টা করছে বলে অভিযোগ করেন ট্রাম্প। ট্রাম্প আরও জানান, বেইজিংয়ের এই প্রচেষ্টার বিরুদ্ধে শূল্ক আরোপ ও কোটা ব্যবস্থা প্রবর্তনসহ সব ধরনের ব্যবস্থা নেয়ার কথা বিবেচনা করা হচ্ছে ।

মার্কিন বাণিজ্য মন্ত্রণালয় দুটি রিপোর্ট উপস্থাপন করার পর ট্রাম্প এই হুমকি দিলেন। রিপোর্টে বলা হয়েছে, স্টিল ও অ্যালুমিনিয়াম খাতে চীন ভর্তুকি দিচ্ছে। স্টিল ও অ্যালুমিনিয়াম, নির্মাণ ও যানবাহন তৈরির ক্ষেত্রে খুবই জরুরি পণ্য হিসেবে বিবেচিত। এছাড়া, নিজ অর্থনীতি উন্নয়নের জন্য চীন অভ্যন্তরীণ বাজারের জন্য ব্যাপকমাত্রায় স্টিল উৎপাদন করছে বলে অভিযোগ করছে আমেরিকা। এ সম্পর্কে ট্রাম্প বলেন, “আমি এমন কাজ করব যাতে আমেরিকার স্বার্থ খুব ভালোভাবে সংরক্ষিত হয়।” মনে করা হচ্ছে, এর মাধ্যমে চীনের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেয়ার ইঙ্গিত দিলেন ট্রাম্প।

এদিকে, উত্তর কোরিয়ার সঙ্গে সম্পর্ক উন্নয়নের জন্য দক্ষিণ কোরিয়ার নেয়া পদক্ষেপে ক্ষিপ্ত হয়ে ২০১২ সালের মুক্ত বাণিজ্য চুক্তিকে সামনে এনেছেন ট্রাম্প। তিনি বলেছেন, এ চুক্তি আমেরিকার জন্য একটি ‘বিপর্যয়’। ট্রাম্প বলেন, স্বচ্ছ চুক্তির জন্য ওয়াশিংটন নতুন করে আলোচনা করবে, না হলে এ চুক্তি বাতিল করা হবে। এ চুক্তি আমেরিকার বাণিজ্য বিপর্যয়ের কারণ  হতে পারে বলে তিনি অভিযোগ করেন।