আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের সাহায্যে ইরাক পুনর্গঠন, কুয়েতে বৈঠক

যুদ্ধবিধ্বস্ত ইরাক পুনর্গঠনের বিষয়ে পশ্চিমা দেশগুলোর সন্দেহ এবং দুর্বল অবস্থান সত্ত্বেও আন্তর্জাতিক সম্প্রদায় তিন হাজার কোটি ডলার সহায়তা দেয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েছে। এর মধ্যে সবার শীর্ষে রয়েছে তুরস্ক। দেশটি ইরাকে ঋণ ও বিনিয়োগ হিসেবে  খরচ করবে পাঁচশ কোটি ডলার। ইরাক পুনর্গঠনের কাজ শুরু করতে প্রাথমিকভাবে দুই হাজার কোটি ডলার প্রয়োজন বলে দেশটির সরকার জানিয়েছে।সেক্ষেত্রে তিন হাজার কোটি ডলারের এই প্রতিশ্রুতি প্রাথমিক প্রয়োজন মেটানোর চেয়েও বেশি।

এ পর্যন্ত উগ্র সন্ত্রাসী গোষ্ঠী দায়েশের হত্যা ও ধ্বংসযজ্ঞে দেশটির যে ক্ষতি হয়েছে তা কাটিয়ে দেশ পুনর্গঠনে প্রায় আট হাজার ৮২০ কোটি ডলার দরকার, বলেছেন ইরাক সরকার। এছাড়া, ২০০৩ সালের ইরাকের উপর আমেরিকার আগ্রাসনে দেশটি বিরাট ধরনের ক্ষতির সম্মুখীন হন।

আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের সাহায্যে ইরাক পুনর্গঠন, কুয়েতে বৈঠক

কুয়েতের রাজধানী কুয়েত সিটিতে ইরাক পুনর্গঠনকে কেন্দ্র করে অনুষ্ঠিত দু দিনব্যাপী আন্তর্জাতিক সম্মেলনে কুয়েতের আমির ২০০ কোটি ডলার দেয়ার ঘোষণা দিয়েছেন। আমেরিকা এ সম্মেলনে  সরাসরি কোনো অর্থ দেয়ার কথা না বললেও তারা জানিয়েছে, একটি মার্কিন কোম্পানির মাধ্যমে তারা ৩০০ কোটি ডলার খরচ করবে ইরাকের পুনর্গঠনে। এছাড়াও সম্মেলনে ইউরোপীয় ইউনিয়নসহ সৌদি আরব, কাতার, সংযুক্ত আরব আমিরাত, ব্রিটেন এবং আরো বহু দেশ ইরাকে অর্থ সহায়তা দেয়ার ঘোষণা দিয়েছে।