এফডিসি পরিচ্ছন্নতা অভিযানে বাংলাদেশ চলচ্চিত্র পরিবার

আজ বুধবার সকালে ভালোবাসা দিবসে চলচ্চিত্রের নায়ক-নায়িকা, পরিচালক আর খল চরিত্রের অভিনেতাদের দেখা যায় ভিন্নভাবে ভিন্ন কাজে নিয়োজিত। আজ তারা শুটিং করতে বা চলচ্চিত্র সংক্রান্ত কোনো কাজে নয় এসেছিলেন ঝাড়ু ও বেলচা হাতে এফডিসি পরিচ্ছন্নতা অভিযানে।

ভালোবাসা দিবস উপলক্ষে বাংলাদেশ চলচ্চিত্র উন্নয়ন করপোরেশন ও বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির উদ্যোগে আজ এফডিসিতে পরিচ্ছন্নতা অভিযান চালানো হয়। এফডিসির প্রধান ফটক পেরিয়ে ভেতরে ঢুকতেই প্রায় সবার হাতে দেখা যায় ঝাড়ু ও বেলচা। সবাই প্রধান সড়কের ভেতরের রাস্তা ঝাড়ু ও বেলচা দিয়ে পরিষ্কার করেছেন। জ্যেষ্ঠদের পাশাপাশি নতুনদেরও দেখা গেছে এই অভিযানে অংশ নিতে।

বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির সভাপতি মিশা সওদাগর বলেন- ‘আমাদের পরিকল্পনা যখন শিল্পীরা জানতে পেরেছেন, তখন সবাই রাজি হয়ে যান। সবাই মিলে সিদ্ধান্ত নিই, ভালোবাসার দিনে ভালো কাজ করি। ভালোবাসা মানেই তো ভালো থাকা। আরেকজনকে সুস্থ রাখা। আমি নিজে যদি পরিষ্কার থাকি, এলাকা পরিষ্কার থাকবে। এলাকা পরিষ্কার থাকলে দেশও পরিষ্কার থাকবে। আমরা এই পরিচ্ছন্নতা অভিযান নিয়মিত চালিয়ে নেওয়ার কথাও ভাবছি।’

‘ডেটল-চ্যানেল আই পরিচ্ছন্ন বাংলাদেশ পাওয়ার্ড বাই হারপিক’-এর অংশ হিসেবে এই পরিচ্ছন্নতা অভিযান। পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতা অভিযানে নায়ক-নায়িকা ও পরিচালকদের মধ্যে অংশ নিয়েছেন রোজিনা, নূতন, রিয়াজ, পপি, মিশা সওদাগর, জায়েদ খান, শাহনূর, কেয়া, রুবেল, ডিপজল, বিপাশা কবির, জয় চৌধুরী, অধরা খান, নাদিম, শাহ আলম কিরণ, গাজী মাহবুব, মুশফিকুর রহমান গুলজার প্রমুখ। চলচ্চিত্রের নায়ক-নায়িকা এবং পরিচালকেরা ছাড়াও এই পরিচ্ছন্নতা অভিযানে অংশ নিয়েছেন ঢাকা উত্তরের মেয়র পদপ্রার্থী আতিকুল ইসলাম, সিটি করপোরেশনের বর্জ্য ব্যবস্থাপনা পরিচালক আবদুর রাজ্জাকসহ সিটি করপোরেশনের কর্মকর্তারা।