‘সিরিয়ার অভ্যন্তরে দেশ গড়তে আমেরিকার ষড়যন্ত্র’

আজ (মঙ্গলবার) মস্কোতে বেলজিয়ামের পররাষ্ট্রমন্ত্রী দিদিয়ার রেন্ডার্সের সঙ্গে রাশিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই ল্যাভরভ যৌথ সংবাদ সম্মেলন করেন। এ সংবাদ সম্মেলনে তিনি বলেন, আমেরিকা সিরিয়ার সঙ্গতিকে বিপদের মুখে ঠেলে দিচ্ছে। আমেরিকা একতরফাভাবে বিপজ্জনক পদক্ষেপ গ্রহণের চেষ্টা করছে। এর মাধ্যমে সিরিয়ার অভ্যন্তরে ফোরাতের পূর্ব তীরে ইরাক সীমান্তে আরেকটি দেশ গড়ে তোলা হচ্ছে বলে তিনি জানান।

রুশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী আরও বলেন, মস্কো সিরিয়ার শান্তি প্রক্রিয়ার সব পর্যায়েই কুর্দিদের সাহায্য চায়। কারণ কুর্দিদের অংশগ্রহণ ছাড়া সিরিয়া সংকটের সমাধান সম্ভব নয়। মার্কিন সামরিক বাহিনীর কথায় তিনি বলেন, মার্কিনীদের তৎপরতা দেখে মনে হচ্ছে তারা সিরিয়ায় দীর্ঘ মেয়াদে অথবা চীরদিনের জন্য থেকে যেতে চায়।

সিরিয়ায় সন্ত্রাসবাদ ছড়িয়ে পড়ে ২০১১ সাল থেকে। সিরিয়ায় সন্ত্রাসী গোষ্ঠীগুলোকে সহযোগিতার ক্ষেত্রে আমেরিকার নানাভাবে অবদান রয়েছে। কিন্তু তারা সন্ত্রাসবাদ দমনের স্লোগান তুলে সিরিয়ার উত্তরে সামরিক অবস্থান জোরদার করেছে। এই সন্ত্রাসবাদ বিদেশি মদদে তাড়াতাড়ি ছড়িয়ে পরে। ইসরাইলের বিরুদ্ধে সদা-সোচ্চার বাশার আসাদকে ক্ষমতাচ্যুত করতেই সেখানে সন্ত্রাসবাদ ছড়িয়ে দেয়া হয়।