মধ্যপ্রাচ্যে উত্তেজনা না বাড়াতে ইসরাইলকে সতর্ক করল রাশিয়া

মধ্যপ্রাচ্যে উত্তেজনা আর না বাড়াতে ইহুদিবাদী ইসরাইলকে সতর্ক করে দিয়েছে রাশিয়া। রুশ উপ পরাষ্ট্রমন্ত্রী মিখাইল বোগদানভ গতকাল (সোমবার) তেল আবিবকে এ সতর্ক বার্তা দিয়েছেন।

তিনি বলেন, “মধ্যপ্রাচ্যের দেশগুলোতে বিপজ্জনক উত্তেজনা না ছড়ানোর জন্য আমরা সবাইকে শান্ত হওয়ার আহ্বান জানাচ্ছি।” এর আগে গত শনিবার রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন ইসরাইলের যুদ্ধবাজ প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহুকে এক টেলিফোন সংলাপে সতর্ক করে বলেছেন, “এমন কোনো কাজ করবেন না যাতে সংঘাত সৃষ্টি হয়।” এরপর রুশ উপ পররাষ্ট্রমন্ত্রী বোগদানভ তেল আবিবকে সতর্ক করলেন। তিনি ইসরাইলের অভিযোগ নাকচ করে বলেছেন, সিরিয়ার পালমিরার কাছে ইরানের কোনো সামিরক ঘাঁটির কথা তাদের জানা নেই।

গত শনিবার সিরিয়ার পাল্টা ক্ষেপণাস্ত্র হামলায় ইহুদিবাদী ইসরাইলের একটি এফ-১৬ জঙ্গিবিমান বিধ্বস্ত হওয়ার পর ওই অঞ্চলে মারাত্মক উত্তেজনা দেখা দিয়েছে। ইসরাইলের অন্তত আটটি বিমান সিরিয়ার কয়েকটি সামরিক ও বেসামরিক অবস্থানে হামলা চালাতে গেলে সিরিয় সেনারা ইসরাইলি বিমান লক্ষ্য করে ক্ষেপণাস্ত্র হামলা চালায়। ওই ঘটনার পর গোটা মধ্যপ্রাচ্যে চরম উত্তেজনা দেখা দিয়েছে এবং সিরিয়ার সীমান্তে ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা মোতায়েন করেছে ইসরাইল।

বিমান বিধ্বস্ত হওয়ার পর রুশ পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সিরিয়ার সার্বভৌমত্ব লঙ্ঘনের বিরুদ্ধে তীব্র আপত্তি জানায় এবং ইরানের ড্রোনের অনুপ্রবেশের পর ইসরাইল বিমান হামলা চালিয়েছে বলে যে দাবি করেছে তেল আবিব তা সরসারি নাকচ করে দেয় মস্কো। রুশ অবস্থানের কাছে ইসরাইলের বিমান হামলার কারণে মস্কো উদ্বেগও প্রকাশ করেছে।

এদিকে, আইদা তুমা-স্লিম্যান নামে এক ইসরাইলের সংসদ সদস্য বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহুর বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগে যে তদন্ত চলছে তা থেকে জনগণের দৃষ্টি সরাতে তিনি একটি আঞ্চলিক যুদ্ধ শুরুর পাঁয়তারা করছেন।