চুপি চুপি বিয়েটা সেরে ফেললামঃ সৃজিত

কোনো রাখ-ঢাক না রেখে বিয়ে নিয়ে কথা বলেছেন কলকাতার গুণী পরিচালক সৃজিত মুখোপাধ্যায়। চুপি চুপি বিয়ে সেরে ফেলছেন টলিউডের মোস্ট ব্যাচেলর বয় সৃজিত মুখোপাধ্যায়। সেই কথাই নিজে মুখে ঘোষণা করলেন পরিচালক।

সম্প্রতি শ্রী ভেঙ্কটেশ ফিল্মসের দপ্তরে বসে সৃজিত জানালেন, ‘অনেকদিন ধরে প্রেমটা চলছিল। এবার বিয়েটা সেরে ফেললাম। যদিও অনেকদিন আগেই হওয়ার কথা ছিল। শেষ পর্যন্ত ২৯ জানুয়ারি সেটা সম্পন্ন হলো।’ আর এই বিয়ের কথা কাক-পক্ষীও টের পায়নি।

এখন প্রশ্ন পাত্রীটি ক‌ে? পাত্রীর নাম শ্রী ভেঙ্কটেশ ফিল্মস। নামটা পড়ে চোখ মাথায় উঠতেই পারে! কিন্তু স্বয়ং পাত্র যখন এমন কথা বলছে তখন কি আর করা।

ভেঙ্কটেশের নতুন ইনিংস শুরু করতে চলেছেন সৃজিত। সেই ছবির ঘোষণা করতে গিয়ে পরিচালক বলেন, ‘এসভিএফ-এর সাথে বিয়েটা সেরে ফেললাম’।

এখন আসি ছবির প্রসঙ্গে, শংকরের ‘চৌরঙ্গী’ নিয়ে এবার ময়দানে তিনি। খেলোয়াড় প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়, যিশু সেনগুপ্ত, আবির চট্টোপাধ্যায়, মমতা শংকর ও জয়া আহসান। একসময় যে ছবিতে উত্তম কুমার, শুভেন্দু চট্টোপাধ্যায়, বিশ্বজিৎ চট্টোপাধ্যায়, অঞ্জনা ভৌমিক, উৎপল দত্তের মতো কাল্ট অভিনেতা-অভিনেত্রীরা অভিনয় করেছেন, সেখানে নতুন করে তা দর্শকদের সামনে তুলে ধরার কঠিন কাজটি হাতে নিয়েছেন পরিচালক। আর এই কাজে গল্পের স্রষ্টা পুরো ভরসা রাখছেন সৃজিতের ওপর। শংকরের কথায়, ‘চৌরঙ্গীর সাথে কোনো ভুল করবেন না সৃজিত। এদিকে, ছবির সঙ্গীতের দায়িত্বে থাকছেন অনুপম রায়।

এবার দেখি কার চরিত্রে দেখা যাবে কোন মুখকে। উত্তম কুমার অভিনীত স্যাটা বোসের চরিত্রে দেখা যাবে প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়কে। শংকর অর্থাৎ সূত্রধরের ভূমিকায় আবীর চট্টোপাধ্যায়। অনিন্দ্য পাকড়াশির চরিত্রে থাকছেন যিশু সেনগুপ্ত, মিসেস পাকড়াশি হচ্ছেন মমতা শংকর।

এছাড়া মার্কোর চরিত্রে অঞ্জন দত্ত এবং ছোট একটি চরিত্রে দেখা যাবে জয়া আহসানকে। আপাতত চলছে ছবির প্রি-প্রোডাকশনের কাজ। সব ঠিক থাকলে চলতি মাসেই ময়দানে নামবেন সৃজিত ও চৌরঙ্গী টিম।