দাদার জন্মদিনে বউমনির আয়োজন!

সঙ্গীত জগতের দুই অনন্য নাম পিন্টু ঘোষ ও সুকন্যা মজুমদার ঘোষ তিথি। ঠিক যেন একি শাখার দুটি উপশাখা। সঙ্গীত জীবনের বাহিরে একে অপরের জীবন সঙ্গী হিসেবে এক অপরূপ মায়ার বাঁধনে আবদ্ধ দুজনে। গত ৭ই ফেব্রুয়ারি পিন্টু ঘোষের জন্মদিনে তার অর্ধাঙ্গিনী সুকন্যা তিথির আয়োজন ছিল ভালবাসায় পরিপূর্ণ।

জন্মদিনের পুরো দিনটিই ছিল আয়োজনে পরিপূর্ণ। পিন্টু ঘোষের জন্মদিনে ছিল সুকন্যা তিথির নিজ হাতে বানানো পিন্টু ঘোষের পছন্দের বিভিন্ন সুস্বাদু খাবারের আয়োজন। জন্মদিনের আয়োজন নিয়ে পিন্টু ঘোষের সহধর্মিণী ও জনপ্রিয় কণ্ঠ শিল্পী সুকন্যা তিথি ডেইলি মেইল ২৪ কে জানান, আমি পুরো দিনটিই রেখেছি ঘোষ মশাইয়ের জন্য।ঘোষ মশাইয়ের পছন্দের সব খাবারের আয়োজন করেছি সারাটি দিন জুড়ে। ঘোষ মশাই যা যা খেতে পছন্দ করে, চেষ্টা করেছি তার বেশির ভাগই আয়োজনে রাখার। আর এই পুরো আয়োজনটাই ছিল ঘোষ মশাইয়ের জন্য জন্মদিনের চমক।

 

জন্মদিনে খাবারের আয়োজনের সব চেয়ে চমকপ্রদ খাবারটি ছিল সুকন্যা তিথির স্পেশাল ব্রাউনি। অন্যান্য ব্রাউনি থেকে একটু ভিন্ন রেসিপি দিয়ে এই ব্রাউনিটি বানানো হয়েছে যার কারনে এর স্বাদ অন্যান্য ব্রাউনি থেকে কিছুটা আলাদা ও অত্যন্ত মজাদার। ব্রাউনির বিশেষত্ব নিয়ে সুকন্যা তিথির কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, এই ব্রাউনিটা আমি একটু ভিন্ন ভাবে প্রস্তুত করেছি। প্রথমে আধা কাপ ঘি ও আধা কাপ তেল এক সাথে কড়াইতে নিয়ে গরম করতে হবে। এরপর এক চতুর্থাংশ কাপ পরিমাণ গুড়া দুধ ৩ বার তেলের মধ্যে দিয়ে বাদামি না হওয়া পর্যন্ত নাড়তে হবে। এরপর মিশ্রণটিকে একটু ঠাণ্ডা করতে হবে। এবার একটি বাটিতে ৪টি ডিম ও আধা কাপ চিনি একত্রে ভালো করে মিশিয়ে নিতে হবে। এরপর বাদামি হয়ে যাওয়া দুধ ও ডিম চিনির মিশ্রণ একসাথে ভালো করে মেশাতে হবে। এরপর একটি ওভেন প্রুফ বাটিতে ঘি ৫ মিনিট এর মত ভালো করে প্রিহিট করে তার মধ্যে সম্পূর্ণ মিশ্রণটি ঢেলে ১৫ মিনিট বেক করলেই ব্রাউনি রেডি।

জন্মদিনের শুভেচ্ছা জানিয়ে পিন্টু ঘোষকে দিনটি কেমন কাটল তা জানতে চাইলে অত্যন্ত উৎফুল্ল মনে তিনি বলেন, আজকের দিনটা আমার জন্য ছিল খুবই চমকপ্রদ। হাজার ব্যস্ততা থাকা স্বত্বেও সহধর্মিণীর ইচ্ছায় দিনটি তার সাথেই কাটালাম। দিনটির শুরু থেকেই নানা রকম চমক পেয়েছি তার কাছ থেকে। আজকের দিনটি আমার জন্য স্মরণীয় হয়ে থাকবে।