রায়ের কপি হাতে পেলেই আপিল হাইকোর্টে আপিল

বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে রাষ্ট্রপক্ষ কোনো অভিযোগই প্রমাণ করতে পারেনি বলে দাবি করেছেন তার আইনজীবী খন্দকার মাহবুব হোসেন।

তিনি বলেছেন, রাজনৈতিকভাবে হয়রানি করার উদ্দেশ্যে এ রায় দেয়া হয়েছে। রায়ে আমার সন্তুষ্ট নয়।

এ ছাড়া বিএনপির আইনজীবী সানাউল্লাহ মিয়াও রায়ের বিরুদ্ধে আপিল করার কথা জানান।

এর আগে জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় খালেদা জিয়াকে ৫ বছরের কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। ঢাকার বকশীবাজার আলিয়া মাদ্রাসা মাঠে স্থাপিত বিশেষ জজ আদালতে পঞ্চম বিশেষ জজ মো.আখতারুজ্জামান এ আদেশ দেন।

তিনি আরও বলেন, ৪০৯ ধারায় খালেদাকে যে সাজা যে দেয়া হয়েছে তার কোনো অভিযোগই রাষ্ট্রপক্ষ প্রমাণ করতে পারেনি।

রায়ের কপি হাতে পেলেই আপিল হাইকোর্টে আপিল করা হবে বলেও জানিয়েছেন খন্দকার মাহবুব।

তিনি বলেছেন, আমরা রায়ের নকলের জন্য আবেদন করেছি। রায় পাওয়ার সাথে সাথে আমরা হাইকোর্টে জামিন আবেদন করব। আশা করছি আমরা সেদিন জামিন পাব।

বহুল আলোচিত জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় বৃহস্পতিবার রায় ঘোষণা করেছেন আদালত। রায়ে খালেদা জিয়াকে ৫ বছরের সাজা দেয়া হয়েছে। অপর আসামি খালেদার জিয়ার ছেলে তারেক রহমানসহ বাকিদের দেয়া হয়েছে ১০ বছরের সাজা।