ভেকু দিয়ে রাস্তা নির্মাণ, ২৪ ঘণ্টায়ও কোন ব্যবস্থা নিতে পারেননি সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তা

“আধা ঘন্টা পরে আমাকে ফোন করে জানাবেন ভেকু সরিয়ে নিয়েছে কিনা, আমি লোক পাঠিয়ে ব্যবস্থা নিচ্ছি” মুঠোফোনে এমনটিই বলেছিলেন প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা মানোস বোস। গতকাল বুধবার সকালে ফরিদপুরের চরভদ্রাসনে কাবিটা কর্মসূচীর কাজ বেকু দিয়ে করা হচ্ছে এমন অভিযোগের কথা জানালে এ প্রতিবেদককে তিনি এ কথা বলেন। চব্বিশ ঘন্টা পার হয়ে গেলেও কার্যত কোন ব্যাবস্থাই তিনি গ্রহণ করতে পারেননি। বন্ধ হয়নি ভেকু,সিংহ ভাগ কাজই শেষের পথে।

বৃহস্পতিবার সকালে স্থানীয়রা আবারও অভিযোগ করে যে এখনও ভেকু বন্ধ হয়নি। সে পরিপ্রেক্ষিতে সকাল ৯ টায় মাথা ভাঙ্গা গিয়ে দেখা যায় রাস্তার কাজ প্রায় শেষের পথে। এব্যাপারে স্থানীয় এলাকাবাসী অভিযোগ করে বলেন, ভেকু দিয়ে রাস্তা করলে মজবুত হয় না। তাছাড়া শুনছি এই কাজ মাটি কাটা শ্রমিক দিয়ে করার কথা। এ কাজের চুক্তি গ্রহিতা শাহিনকে ভেকু বন্ধের ব্যাপারে জানতে চাইলে তিনি বলেন “অফিসের কোন লোক আসে নাই। শুনছি ঢাকা থেকে কোন অফিসার নাকি আইছিলো সেজন্য মেম্বার দুই ঘন্টা বন্ধ রাখতে বলছিলো।”

প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা মানোস বোস এর সাথে মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন “আমার লোক গিয়েছিল এবং ভেকু বন্ধ করেও দিয়েছিল। আবারও লোক পাঠাচ্ছি যদি ভেকু চালিয়ে থাকে তাহলে উপজেলা নির্বাহী অফিসার স্যারকে বলবো ব্যাবস্থা গ্রহণ করতে।”

হারুন-অর-রশীদ, ফরিদপুর প্রতিনিধি