বলিউডের তিনিই প্রথম এবং একমাত্র নারী!

বলিউডে নারী অভিনেত্রীর কমতি নেই। তবে প্রধান অভিনেত্রীর চরিত্রে নন বরং ইলেকট্রিশিয়ান হিসেবে কাজ করছেন কোন নারী তা ভাবতেই যেন অবাক লাগে। হিতাল দেধিয়া সেই নারী যিনি সবাইকে অবাক করে নিজের ক্যারিয়ার গড়েছেন বলিউডের ইলেকট্রিশিয়ান হিসেবেই।

প্রায় ১০ বছর আগে হিতাল দেধিয়া বলিউডে ক্যারিয়ার শুরু করেন। তিনিই প্রথম এবং একমাত্র নারী যিনি বলিউডে প্রধান ইলেকট্রিশিয়ান হিসেবে কাজ করছেন। সেটে এবং আউটডোরে ছবির শ্যুটিংয়ের সময় আলোকসজ্জা ও যন্ত্র সংক্রান্ত বিষয়গুলোর তত্ত্বাবধান করেন তিনি। সিনেমার ক্যামেরাম্যানরা তাদের কাজ নিখুঁত ভাবে ফুটিয়ে তুলতে প্রধান ইলেকট্রিশিয়ানের ওপরই নির্ভর করেন।

ক্যারিয়ারের দীর্ঘ সময় পেরিয়ে গেলেও নিজ কাজের ক্ষেত্রে অন্য কোনো নারী সহকর্মীকে পাননি। তারপরও অখুশি নন হিতাল। কারণ তার ক্যারিয়ারের শুরুতে পুরো বলিউড শিল্পে নারী কর্মীর সংখ্যা ছিল নগণ্য।

হিতালের মতে, এখন অনেক নারী প্রযোজক, মেকআপ আর্টিস্ট, হেয়ার স্টাইলিস্ট, কস্টিউম ডিজাইনার হিসেবে কাজ করছেন। সব জায়গায় নারী কিন্তু আজ থেকে ১০ বছর আগে বিষয়টি এমন ছিল না। তখন নারীদের চোখেই পড়তো না।

বলিউডে হিতাল ছাড়া প্রধান ইলেক্টশিয়ান সবাই পুরুষ। তাই স্বাভাবিকভাবে তাদের আধিপত্যই বেশি।

তাছাড়া ভারতে এ কাজে পারিশ্রমিকও যথাযথ নয়। তাই কাজে কী ধরনের চ্যালেঞ্জের মুখোমুখি হন জানতে চাইলে হিতাল বলেন, ‘এ কাজে আসতে অনেক শিখতে হয়। আর যারা এ কাজ করেন তাদের ব্যক্তিগত জীবন বলে কিছু থাকে না। কঠোর পরিশ্রম করতে হয়।’

কিন্তু এত কিছুর পরও হিতাল চান, এ কাজে নারীরা আরও বেশি বেশি আসুক। কারণ পুরুষের চেয়ে নারীরা তুলনামূলক ভাবে বেশি সৃজনশীল হিসেবে কাজ করতে সক্ষম।

সময়ের সাথে সাথে এখন নারীরাও এগিয়ে চলছে সমান তালে হিতাল তাঁর এক অনন্য উদাহরণ।