চুরি হওয়া রিজার্ভের অর্থ ফেরাতে বাংলাদেশ ব্যাংকের মামলা

বাংলাদেশ ব্যাংকের চুরি হওয়া রিজার্ভের বাকি অর্থ ফেরত আনতে অবশেষে মামলা করছে বাংলাদেশ ব্যাংক। আজ বুধবার সচিবালয়ে অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত এ তথ্য জানিয়েছেন।

তিনি আরও বলেন, বাংলাদেশ ব্যাংক ঘটনাটি নিয়ে নিউ ইয়র্কে মামলার প্রস্তুতি নিচ্ছে। এ বিষয়ে যুক্তরাষ্ট্রের ফেডারেল রিজার্ভ ব্যাংক সহায়তা দেবে বলেও জানান তিনি। আজ বুধবার বিকেলে কেন্দ্রীয় ব্যাংক এ বিষয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে ঘোষণা দেবে।

বাংলাদেশ ব্যাংকের একটি সূত্রে জানা গেছে, চুরি যাওয়া অর্থ ফেরত আনতে ফিলিপাইনের রিজাল কমার্শিয়াল ব্যাংকিং কর্পোরেশনের (আরসিবিসি) বিরুদ্ধে বাংলাদেশ ব্যাংক মামলা করবে। এছাড়া এই ঘটনার সঙ্গে ১০ থেকে ১২টি দেশের প্রতিষ্ঠান জড়িত থাকার সন্দেহে তাদেরকেও মামলায় অন্তর্ভুক্ত করা হবে।

২০১৬ সালের প্রথম দিকে যুক্তরাষ্ট্রের ফেডারেল রিজার্ভ ব্যাংক থেকে সুইফট কোডের মাধ্যমে বাংলাদেশ ব্যাংকের প্রায় ১০১ মিলিয়ন ডলার চুরি করে দুর্বৃত্তরা। এর মধ্যে ২ কোটি ডলার চলে যায় শ্রীলঙ্কা এবং ৮ কোটি ১০ লাখ ডলার চলে যায় ফিলিপাইনের জুয়ার আসরে।

চুরি যাওয়া অর্থের মধ্যে এখন পর্যন্ত ফেরত এসেছে ১ কোটি ৪৫ লাখ ৪০ হাজার ডলার। বাকি ৬ কোটি ৬৪ লাখ ডলার এখনো ফেরত পাওয়া যায়নি।

এদিকে বাংলাদেশ ব্যাংকের রিজার্ভ চুরির ঘটনায় সরকার গঠিত ফরাস উদ্দিনের নেতৃত্বে তদন্ত কমিটির রিপোর্ট এখনও প্রকাশ করা হয়নি।