সোহেলের আটক নিয়ে ধোয়াশা

ঢাকা মহানগর দক্ষিণের সভাপতি ও বিএনপির যুগ্ম-মহাসচিব হাবিব-উন-নবী খান সোহেলকে আটক নিয়ে সকাল থেকে ধোয়াশার সৃষ্টি হয়েছে। বিএনপি সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী অভিযোগ করেছেন সোহেলকে গোয়েন্দা পুলিশ তুলে নিয়ে গেছে। একই কথা বলেছেন তার ব্যক্তিগত সহকারি আক্তারুজ্জামান বাচ্চুও। তবে আইন-শৃঙ্খলাবাহিনীর পক্ষ থেকে এ নিয়ে এখনো পর্যন্ত কোনও আনুষ্ঠানিক বক্তব্য পাওয়া যায়নি।

এমনকি বিএনপি ও সোহেলের পরিবার পক্ষ থেকে এ নিয়ে এখনো পর্যন্ত কোনও আনুষ্ঠানিক বক্তব্য পাওয়া যায়নি। ফলে এ নিয়ে সৃষ্টি হয়েছে ধোয়াশার। এর আগে তার ব্যক্তিগত সহকারি আক্তারুজ্জামান বাচ্চু সাংবাদিকদের বলেন, দলের চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার সফরসঙ্গী হিসেবে সি‌লেট থে‌কে ঢাকায় ফিরছিলেন সোহেল। পথে মালিবাগ থেকে তাকে আটক করে গোয়েন্দা পুলিশ।

আর বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী অভিযোগ করেন, মঙ্গলবার ভোরে খালেদা জিয়ার গাড়িবহর থেকে মালিবাগের বাসায় ফেরার পথে তাকে তুলে নেওয়া হয়েছে। সোহেল কোথায় আছে, কিভাবে আছে কেউ জানে না। কেউ বলছে তাকে মালিবাগ থেকে গ্রেফতার করা হয়েছে, কেউ বলছে তাকে তুলে নেওয়া হয়েছে। পুলিশের পক্ষ থেকে বিষয়টি অস্বীকার করা হয়েছে। তিনি বলেন, সারাদেশে এখন পর্যন্ত বিএনপির ১১০০ শতাধিক নেতাকর্মী গ্রেফতার করা হয়েছে।

এসময় বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব হাবিব উন নবী খান সোহেলের সন্ধান দাবি করেন রিজভী। তাকে আটক করা হলে বা না হলেও অবস্থান পরিষ্কার করতে বলেন তিনি। প্রসঙ্গত, হাবিব-উন নবী খান সোহেলের বিরুদ্ধে রাজধানীর বিভিন্ন থানায় নাশকতার অভিযোগে একাধিক মামলা রয়েছে। রাজধানীর পল্টন, মিরপুর, মতিঝিল, ডেমরা, আদাবর ও কালসী থানায় দায়ের হওয়া মামলায় উচ্চ আদালত থেকে তিনি সম্প্রতি জামিনে মুক্তি পান।