বই মেলা কোন বাণিজ্য মেলা নয়, বই মেলা আবেগের মেলা: ফকির আলমগির

শুরু হল বাঙালির প্রাণের মেলা অমর একুশে বই মেলা ২০১৮। বই মেলার মাধ্যমে অনেক নবীন লেখকের জন্ম হয়, সৃষ্টি হয় নতুন পাঠক। বইমেলা জ্ঞানচর্চার দ্বার উন্মুক্ত করে। এবারের বই মেলায় নিজের লেখা বই নিয়ে ‘ঋষিজ শিল্পী গোষ্ঠী’ নামে একটি বুক স্টলে অংশ নিয়েছেন বরেণ্য গণসংগীত শিল্পী ও মুক্তিযুদ্ধের কণ্ঠ সৈনিক ফকির আলমগির।

বই মেলার মাহাত্ম্য তুলে ধরে বিপ্লবী এই কণ্ঠশিল্পী বলেন, বই মেলা কোন বাণিজ্য মেলা নয়, বই মেলা আবেগের মেলা, বই মেলা প্রাণের মেলা। সমগ্র বিশ্বের অনেক জায়গায়ই বই মেলার আয়োজন করা হয়। কিন্তু আমাদের দেশের বই মেলার আয়োজনে একটা অন্ন রকম আবেগ জড়িয়ে আছে।

তিনি আরও বলেন, বই মেলা একুশে ভাষা আন্দোলনের একটি রক্তাক্ত দলিল। ভাষা সংগ্রামের গান, ৬৯ এর অভ্যুত্থানের গান, ৭১ এর গান তার সাথে যুক্ত হল বঙ্গবন্ধুর ৭ই মার্চের ভাষণের ইউনস্কের স্বীকৃতি, এ সব কিছু মিলিয়ে এবারের আয়োজন অনেক বেশি নান্দনিক ও প্রসারিত। আমাদের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বই মেলার উদ্বোধন করেছেন, সেই সাথে সাহিত্য মেলায় যুক্ত হয়েছে।

তিনি বলেন, বই মেলার যেদিকে তাকাবেন, সেদিকেই বাংলার ইতিহাসকে খুঁজে পাবেন। আছে বঙ্গবন্ধু, কবি নজরুল, রবীন্দ্রনাথ, লালন এদের সবাইকে ঘিরে যেন বই মেলা তার প্রাণ খুঁজে পায়।

ঋষিজ বুক স্টল নিয়ে তিনি বলেন, এবারের মেলায় আমাদের বুক স্টল আমরা উৎসর্গ করেছি স্বর্গীয় নায়ক রাজ রাজ্জাক ও গায়ক রাজ আব্দুল জব্বারকে। এই ঋষিজ বুক স্টল শুরু হয় ১৯৮৫ সাল থেকে। জগন্নাথ হলের ট্র্যাজেডি নিয়ে নির্মিত গানে শোকার্ত বাংলা, তার মধ্য দিয়ে এর পথ চলা শুরু।