দৌলতপুরে পদ্মার চরে বালিচাপা অবস্থায় যুবকের লাশ উদ্ধার

কুষ্টিয়ার দৌলতপুর উপজেলা চিলমারী ইউনিয়নের বাংলা বাজার নতুন ঘাট এলাকায় পদ্মা নদীর তীরে বালির নীচে চাঁপা দেওয়া অবস্থায় থাকা রনি (২৫) নামে এক যুবকের লাশ উদ্ধার করেছে দৌলতপুর থানা পুলিশ। সে উপজেলার আল্লারদর্গা সংলগ্ন তাজপুর গ্রামের নাহারুল ইসলামের ছেলে।

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় এলাকাবাসী থানায় খবর দিলে পদ্মার চরে বালিচাপা অবস্থায় এ লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, বৃহস্পতিবার বিকালে বাংলা বাজার নতুন ঘাট এলাকার চরের মধ্যে বালির নিচে পুতে রাখা যুবকের লাশ কয়েকটি কুকুরে টানাটানি করতে দেখে কয়েকজন পথচারী কাছে গিয়ে দেখেন সেটি কোন যুবকের গলিত মৃতদেহ। পরে তারা এলাকাবাসী কে ডেকে পুলিশে খবর দিলে পুলিশ ঐ যুবকের লাশ উদ্ধার করে। এবং ময়না তদন্তের জন্য কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করেছে। এ ব্যাপারে দৌলতপুর থানায় মামলা হয়েছে।

দৌলতপুর থানার ওসি শাহ দারা খান জানান, তাৎক্ষনিক ব্যাপক অনুসন্ধান করে ঐ যুবকের পরিচয় জানা যায়। এ ঘটনায় জিজ্ঞাসা বাদের জন্য তাজপুর গ্রাম থেকে মহিলা সহ ৩ জন কে আটক করা হয়েছে। তিনি আরো জানান, নিহত রনির এক প্রতিবেশী মহিলার সাথে তার পরকীয়ার কারণে রনিকে বেড়াতে নিয়ে গিয়ে এ হত্যাকান্ড ঘটিয়ে নদীতীরে বালিচাপা দেয়া হয়েছিল বলে প্রাথমিক তদন্তে জানা গেছে।

জহুরূল হক, কুষ্টিয়া প্রতিনিধি