রাষ্ট্রপতি প্রার্থী হতে মনোনয়নপত্র নিয়েছেন মো. আবদুল হামিদ

আওয়ামী লীগের মনোনয়ন নিশ্চিত হওয়ার পর রাষ্ট্রপতি প্রার্থী হতে নির্বাচন কমিশন থেকে মনোনয়নপত্র নিয়েছেন মো. আবদুল হামিদ। আজ শুক্রবার বেলা সোয়া ১১টার দিকে আগারগাঁওস্থ নির্বাচন ভবনে ইসির ভারপ্রাপ্ত সচিব হেলালুদ্দীন আহমদের কাছ থেকে তার পক্ষে মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেন জাতীয় সংসদের চিফ হুইপ আ স ম ফিরোজ।

রাষ্ট্রপতি নির্বাচন পরিচালনার দায়িত্বে আছেন সিইসি; এই নির্বাচনে শুধু সংসদ সদস্যরা ভোট দিতে পারেন, ভোটগ্রহণও হয় সংসদে। সংসদে আওয়ামী লীগের নিরঙ্কুশ সংখ্যাগরিষ্ঠতা থাকায় রাষ্ট্রপ্রধানের পদে ৭৪ বছর বয়সী আবদুল হামিদের দ্বিতীয় মেয়াদে নির্বাচিত হওয়া আনুষ্ঠানিকতা মাত্র। নির্বাচন কমিশন ঘোষিত তফসিল অনুযায়ী দেশের ২১তম রাষ্ট্রপতি নির্বাচনের জন্য নির্বাচন কর্তার কাছে মনোনয়নপত্র দাখিল করা যাবে ৫ ফেব্রুয়ারি সকাল ১০টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত। ইসি মনোনয়নপত্র পরীক্ষা করবে ৭ ফেব্রুয়ারি। মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার করা যাকে ১০ ফেব্রুয়ারি বিকেল ৪টা পর্যন্ত। ভোটগ্রহণ ১৮ ফেব্রুয়ারি।

জাতীয় সংসদে দুই-তৃতীয়াংশ সংখ্যাগরিষ্ঠ আওয়ামী লীগ। সংসদে বিরোধী দল জাতীয় পার্টির সদস্য সংখ্যা ৩৬ জন। রাষ্ট্রপতি নির্বাচনে দলটির কোনো প্রার্থী মনোনয়ন দেওয়ার সম্ভাবনা নেই। ফলে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী বিনাপ্রতিদ্বন্দ্বিতায় বিজয়ী হবেন। রাষ্ট্রপতি নির্বাচনের ভোটার সংসদ সদস্যরা। ৩৫০ সদস্য বিশিষ্ট জাতীয় সংসদে আওয়ামী লীগের সংসদ সদস্য ২৩২ জন।

এদিকে রাষ্ট্রপতি নির্বাচনের জন্য সব ধরনের প্রস্তুতি নিচ্ছে নির্বাচন কমিশন। এরইমধ্যে নির্বাচন কমিশন ভোটার তালিকা সংসদ সচিবালয়ে পাঠিয়েছে। গাইবান্ধা-১ ও ব্রাহ্মণবাড়িয়া-১ শূন্য আসন বাদ দিয়ে বাকি ৩৪৮ জন এমপির নাম রয়েছে ভোটার তালিকায়। সংসদ সদস্য হিসেবে ভোটারের অনুকূলে বিভক্তি সংখ্যা, ভোটারের নাম ও নির্বাচনী এলাকা উল্লেখ রয়েছে তালিকায়।