চাকরি জাতীয়করণের দাবিতে বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ধর্মঘট

চাকরি জাতীয়করণের দাবিতে আজ থেকে সারা দেশের সব বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে লাগাতার ধর্মঘট চলছে। শিক্ষক-কর্মচারীদের ছয়টি সংগঠনের সমন্বয়ে গঠিত জোট বেসরকারি শিক্ষা জাতীয়করণ লিয়াজোঁ ফোরাম। জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে এর আহ্বায়ক আবদুল খালেক মিয়া গতকাল এ ঘোষণা দেন।

এদিকে জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে গতকাল ‘আমরণ অনশন’-এর ১৪তম দিন কাটিয়েছেন শিক্ষক-কর্মচারীরা। এর আগে তারা চার দিন অবস্থান কর্মসূচি পালন করেন। তাতে সাড়া না পেয়ে আমরণ অনশন কর্মসূচি শুরু করেন। এবার সারা দেশে ধর্মঘটের ডাক দিলেন তারা।

শিক্ষকরা দাবি করেন, টানা আন্দোলনে এ পর্যন্ত ১৪২ জন শিক্ষক অসুস্থ হয়ে পড়েছেন। তাদের অনেকে আশপাশের বিভিন্ন হাসপাতালে প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়ে আবারও আন্দোলনে যোগ দিয়েছেন। অনেকে আবার শরীরে স্যালাইন লাগিয়ে আন্দোলন চালিয়ে যাচ্ছেন। এ ছাড়াও অসুস্থ হয়ে পড়ায় দুজন শিক্ষক ঢাকা মেডিকেল কলেজে ভর্তি রয়েছেন।

সংগঠনের মহাসচিব কামাল হোসেন বলেন, শর্ত অনুযায়ী ২০০৯ সাল থেকে সমাপনী পরীক্ষায় অংশ নেওয়া বিদ্যালয়কে জাতীয়করণের কথা থাকলেও তা হয়নি। তালিকাভুক্ত থাকার পরও নানা কৌশলে বাতিল করা হয়েছে। আমরা তা মেনে নেব না। জাতীয়করণ আদায়ে আমরা রাজপথে নেমেছি। দাবি আদায় না হওয়া পর্যন্ত শিক্ষকরা রাস্তায় পড়ে থাকবেন।

উল্লেখ্য, জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনের রাস্তার পাশে গত ১০ জানুয়ারি থেকে তারা বেসরকারি শিক্ষা জাতীয়করণ লিয়াজোঁ ফোরামের ব্যানারে অবস্থান কর্মসূচি ও ১৫ জানুয়ারি থেকে আমরণ অনশন পালন করে যাচ্ছেন।