পুলিশ কোয়ার্টারে ওসির স্ত্রীর ঝুলন্ত দেহ!

ভারতের সাঁইথিয়া থানা পুলিশ কোয়ার্টারের মধ্য থেকে উদ্ধার করা হয়েছে ওসির স্ত্রীর ঝুলন্ত দেহ৷ সোমবার বিকালে প্রিয়া দত্ত নাগকে (২৮) গলায় কালো ওড়না দিয়ে ঝুলন্ত অবস্থায় দেখতে পাওয়া যায়৷ পুলিশের অনুমান প্রিয়া আত্মঘাতী হয়েছে৷

সাঁইথিয়া টাউন ওসি স্বাপন নাগের সঙ্গে বেশ কিছুদিন ধরেই পারিবারিক অশান্তি চলছিল৷ থানা সূত্রে খবর, এই অশান্তির জেরে এর আগেও প্রিয়াদেবী আত্মঘাতী হওয়ার চেষ্টা করেন৷ অভিযোগ, স্বপন নাগের বিবাহ বহির্ভূত সম্পর্কের জেরে বেশ কিছুদিন ধরেই পারিবারিক অশান্তি চলছিল৷ গত পাঁচ বছর ধরে তিনি সাঁইথিয়া থানাতেই কর্মরত৷

থানা সূত্রে খবর, অশান্তি মেটাতে বেশ কিছুদিন সাঁইথিয়া থেকে রায়গঞ্জে স্বপনবাবু নিজের বাড়িতে গিয়ে দুজনে ছুটি কাটিয়ে আসেন৷ এমনকি সোমবার সকালে থানা কোয়ার্টারের বাড়িতে সরস্বতী পুজো করেন দশ বছরের মেয়েকে নিয়ে৷ সেই ছবি সোশ্যাল মিডিয়াতে পোষ্ট করেন স্বপনবাবু৷

থানার অনান্য কোয়ার্টারের বাসিন্দারা জানান, এদিন বিকালে মেয়েকে নিয়ে সাঁইথিয়া শহরে একটি নাচের অনুষ্ঠানে যান প্রিয়া দেবী৷ সেখান থেকে মেয়েকে নিয়ে কোয়ার্টারে ফেরেন৷ মেয়ে পাশের বাড়িতে যেতেই কয়ার্টারের ভিতর কালো ওড়না দিয়ে প্রিয়াদেবী ঝুলে পড়েন৷

থানার পুলিশ কর্মীরা দেহটি উদ্ধার করে সাঁইথিয়া হাসপাতালে নিয়ে গেলে তাকে মৃত বলে ঘোষণা করেন চিকিৎসকরা। তবে মৃত্যুর কারণ নিয়ে পুলিশের তরফে কেউ মুখ খোলেনি৷ প্রিয়াদেবীর বাপের বাড়িতে খবর দেওয়া হয়েছে৷