চায়ের সঙ্গে বিষ মিশিয়ে সিএনজি চালককে হত্যা

রাজধানীর শেরেবাংলা নগর এলাকায় সিএনজি চালক ইসকেন্দার হাওলাদারকে হত্যার ঘটনায় দুইজনকে গ্রেফতার করেছে ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশের পশ্চিম বিভাগ। গ্রেফতারকৃতরা হচ্ছেন মো. লিটন (৪৫) ও মো. জসিম (২৮)। রাজধানীর শাহআলী এলাকা থেকে তাদের গ্রেফতার করা হয়। এসময় তাদের হেফাজত হতে চুরি যাওয়া সিএনজি উদ্ধার করা হয়।

আসামিরা বাণিজ্য মেলা থেকে সিএনজিটি ভাড়া নিয়ে ফার্মগেটে নেমে ড্রাইভারকে চায়ের সঙ্গে বিষপান করিয়ে হত্যা করে। মঙ্গলবার ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) মিডিয়া সেন্টারে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এ কথা জানান ডিবির যুগ্ম কমিশনার আবদুল বাতেন। তিনি বলেন, ইস্কান্দারের মৃত্যুর কারণটি ছিল ক্লু-লেস। ডিবি পশ্চিমের টিম এটি নিয়ে তদন্ত শুরু করে। এরপর তারা জানতে পারে ইস্কান্দারকে হত্যা করা হয়েছে।

ঘটনার দিনের বর্ণনা দিয়ে তিনি বলেন, ১৩ জানুয়ারি গ্রেফতারকৃত আসামিরা বাণিজ্য মেলা থেকে সিএনজি ভাড়া করে ফার্মগেট এলাকায় আসে। রাস্তায় জ্যামের কারণে অধিক সময় ধরে সিএনজিতে থেকে চালকের সঙ্গে আসামিরা সখ্য গড়ে তোলে তারা। ফার্মগেটে সিএনজি আসার পর তারা সিএনজির ড্রাইভারকে চা খাওয়ার জন্য বলে। ড্রাইভার তাদের সঙ্গে চা খেতে আসলে চা’য়ে অচেতন করার বিষ জাতীয় পদার্থ মিশিয়ে খাওয়ায়।

তিনি আরও জানান, পরবর্তী সময়ে সে অসুস্থ হয়ে পড়লে তাকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার কথা বলে সিএনজিতে করে নিয়ে যায়। পথের মধ্যে সিএনজির ড্রাইভারের মৃত্যু হলে তার লাশ মানিক মিয়া এভিনিউয়ের সেচ ভবনের সামনের ড্রেনে ফেলে সিএনজি নিয়ে চলে যায় তারা।

প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে আসামিরা ঘটনায় জড়িত থাকার কথা স্বীকার করেছেন। এ ঘটনায় ১৪ জানুয়ারি শেরেবাংলা নগর থানায় অজ্ঞাত আসামিদের বিরুদ্ধে একটি হত্যা মামলা হয়। ক্লু লেস মামলা হওয়ায় তা ডিবিতে হস্তান্তর করা হয়। আসামিদের সেই মামলায় গ্রেফতার দেখিয়ে আদালতে পাঠানো হবে।