পঞ্চগড়ে তথ্য সেবা কেন্দ্রেগুলোতে ব্যাপক অনিয়ম, নিশ্চুপ কর্তৃপক্ষ

পঞ্চগড়ের ৫টি উপজেলার ইউনিয়ন পরিষদ তথ্য ও সেবা কেন্দ্রগুলোতে কর্মকর্তাদের ব্যাপক অনিয়ম ও দূর্নীতিতে অতিষ্ঠ নাগরিকরা। বর্তমান সরকার প্রধান মাননীন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার দৃঢ় প্রত্যয় নিয়ে প্রতি ইউনিয়নের জনসাধারনের মাঝে ডিজিটাল তথ্য ও সেবা পৌছে দেওয়ার লক্ষ্যে যে মহৎ উদ্দেশ্যে প্রকল্প শুরু করেছেন তা কতিপয় অসাধু কর্মকর্তা-কর্মচারীর জন্য প্রশ্নবিদ্ধ হচ্ছে।

অতিরিক্ত টাকা আদায়, অসদাচারণ, অসম্পূর্ণ দক্ষতা, সেবা কেন্দ্রে সঠিকভাবে সময় না দেওয়া ও কর্তৃপক্ষের সুষ্ঠু তদারকির অভাবে ইউনিয়ন তথ্য ও সেবা কেন্দ্র থেকে মুখ ফিরিয়ে নিতে বাধ্য হচ্ছেন এলাকার সাধারণ মানুষ।

শুধু তাই নয় লোক দেখানো সেবা প্রদানের জন্য নিযুক্ত ব্যক্তিদের যথেষ্ট কম্পিউটার জ্ঞান না থাকায় একদিকে যেমন সেবা প্রদান বিলম্বিত হচ্ছে অন্যদিকে সেবা গ্রহনকারী সাধারণ মানুষ প্রয়োজনীয় সেবা না পেয়ে ইউনিয়ন ই তথ্য কেন্দ্রগুলো থেকে মুখ ফিরিয়ে নিচ্ছেন। ইউনিয়ন পরিষদ সেবা কেন্দ্রে এমন পরিস্থিতি চলতে থাকলে দেশ ও জাতির কল্যাণে ব্যাঘাতসহ ডিজিটাল দেশ গড়ার স্বপ্ন অধরাই থেকে যাবে।

ইউনিয়ন পরিষদ তথ্য ও সেবা কেন্দ্র গুলোতে প্রতিদিন অনেকেই অতি প্রয়োজনীয় জন্ম নিবন্ধন সনদের জন্য আসছেন। স্বল্প ব্যয়ে নাগরিক সুবিধা প্রদানের লক্ষ্যে স্থানীয় সরকার বিভাগ গত ১৮ ডিসেম্বরে জন্ম নিবন্ধন সনদ উত্তোলন ফি প্রায় ৭৫ শতাংশ কম করে নতুন ফি প্রকাশ করলেও কেন্দ্রগুলো পূর্ব মূল্য রাখা হচ্ছে। এমনকি অনেকের কাছে এজন্য ৩০০-৫০০ টাকা পর্যন্ত নেওয়া হচ্ছে। এ বিষয়ে তথ্য কেন্দ্রগুলোতে যোগাযোগ করা হলে দায়িত্বপ্রাপ্তরা জানান তারা এখনও সরকারি নির্দেশনা পান নি।

নাজমুস সাকিব মুন, পঞ্চগড় জেলা প্রতিনিধি