আম আদমি পার্টির ২০ বিধায়ককে অসাংবিধানিকভাবে বরখাস্ত

ভারতের আম আদমি পার্টির ২০ বিধায়ককে অসাংবিধানিকভাবে বরখাস্ত করা হয়েছে বলে দলটির পক্ষ থেকে অভিযোগ করা হয়েছে। আজ (সোমবার) আম আদমি পার্টির (আপ) নেতা ও দিল্লির উপ-মুখ্যমন্ত্রী মনিশ সিসোদিয়া সাধারণ মানুষের উদ্দেশেলেখা এক খোলা চিঠিতে ওই অভিযোগ করেছেন।

আপ বিধায়কদের বিভিন্ন দফতরের পরিষদীয় সচিব হিসেবে নিয়োগ দেয়ায় তারা লাভজনক পদে আছেন- এমন অভিযোগে নির্বাচন কমিশন সম্প্রতি দলটির ২০ বিধায়ককে অযোগ্য ঘোষণা করেছে। গতকাল (রোববার) প্রেসিডেন্ট রামনাথ কোবিন্দ তাতে সম্মতি দেয়ায় আপের ওই বিধায়কদের সদস্য পদ বাতিল হয়ে গেছে। সিনিয়র আপ নেতা আশুতোষ প্রেসিডেন্টের সিদ্ধান্তকে ‘অসাংবিধানিক’ এবং ‘গণতন্ত্রের পক্ষে অত্যন্ত বিপজ্জনক’ বলে অভিহিত করেছেন।

দিল্লির উপ-মুখ্যমন্ত্রী মনিশ সিসোদিয়া আজ (সোমবার) এক খোলা চিঠিতে বলেছেন ‘নির্বাচিত বিধায়কদের এভাবে অসাংবিধানিক উপায়ে এবং বেআইনিভাবে বরখাস্ত করা কী ঠিক? এটা কী নোংরা রাজনীতি নয়? যে বিধায়কদের লাভজনক পদে থাকার জন্য অযোগ্য ঘোষণা করা হয়েছে তাদের ভিন্ন ভিন্ন কাজ দেয়া হয়েছিল। তারা এজন্য এক পয়সাও না নিয়ে কাজ করতেন। বিধায়কদের কোনো সরকারি গাড়ি বা বাংলো দেয়া হয়নি। তাদের বেতনও দেয়া হয়নি। তারা নিজেদের খরচেই কাজ চালাতেন।’

দিল্লিবাসীর উদ্দেশে সিসোদিয়ার প্রশ্ন, ‘অযোগ্য ঘোষণা করা বিধায়করা যদি কোনো অর্থ না নেন তাহলে তারা লাভজনক পদে ছিলেন কীভাবে বলা যায়? ওই বিধায়করা নির্বাচন কমিশনকে বলেছিলেন- তারা যে লাভজনক পদে নেই, তারা এর প্রমাণ দেবেন। কিন্তু কোনো শুনানি ছাড়াই এবং কোনো সাক্ষ্য প্রমাণ না দেখেই তাদের বরখাস্ত করা হয়েছে- যা গুরুতর অন্যায়।’

মনীশ সিসোদিয়া বিজেপি নেতৃত্বাধীন বিজেপি সরকারের সমালোচনা করে বলেন, ‘কেন্দ্রীয় সরকার এই প্রথম নয়, বিগত তিন বছর ধরে তারা দিল্লি সরকারকে হয়রানি করতে চেষ্টার ত্রুটি রাখেনি।’ বিজেপি’র বিরুদ্ধে অভিযোগ করে তিনি বলেন, বিধায়কদের বরখাস্ত করার মাধ্যমে দলটি দিল্লিতে নির্বাচন চাপিয়ে দিয়েছে ফলে আগামী দুই বছর দিল্লিতে উন্নয়ন কর্মকাণ্ড ব্যাহত হবে। ২০ বিধানসভা আসনে উপনির্বাচন, পরে লোকসভা নির্বাচন, তারপর পুনরায় বিধানসভা নির্বাচন এভাবে দুই বছর পেরিয়ে যাবে এবং দিল্লিবাসীকে সমস্যায় পড়তে হবে, সাধারণ মানুষের উপর খরচের প্রভাবও পড়বে।

অন্যদিকে, আজ আম আদমি পার্টির প্রধান ও দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়ালয়ের পদত্যাগের দাবিতে দিল্লিতে কংগ্রেসের পক্ষ থেকে বিক্ষোভ প্রদর্শন করা হয়েছে। কংগ্রেস কর্মীরা বিভিন্ন দাবি সম্বলিত প্ল্যাকার্ড বহন করে বিক্ষোভ দেখান। তাদের দাবি- আপের ২০ বিধায়ক বরখাস্ত হওয়ায় মুখ্যমন্ত্রী পদে থাকার আর কোনো নৈতিক অধিকার নেই মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়ালের।