আদনান হত্যাকাণ্ডে জড়িত পাঁচজনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ

চট্টগ্রামে স্কুলছাত্র আদনান ইসফার হত্যাকাণ্ডে জড়িত থাকার অভিযোগে পাঁচজনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। আজ বৃহস্পতিবার ভোররাতে নগর ও জেলার বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে তাঁদের গ্রেপ্তার করা হয়। কোতোয়ালি থানার ওসি জসীম উদ্দিন জানান, বৃহস্পতিবার ভোর থেকে চট্টগ্রাম নগরী ও ফটিকছড়ি উপজেলার বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে পুলিশ তাদের গ্রেপ্তার করে। গ্রেপ্তার হওয়া পাঁচ যুবকের মধ্যে চারজন হলেন মো. মঈন, মো. সাব্বির, মো. সাঈদ ও মো. আরমান। আরেকজনের নাম এখনো জানা যায়নি।

তাদের কাছ থেকে হত্যাকাণ্ডে ব্যবহৃত ছুরিও উদ্ধার করা হয়েছে বলে জানান ওসি। চট্টগ্রাম কলেজিয়েট স্কুলের নবম শ্রেণির ছাত্র আদনান ইসফারকে গত মঙ্গলবার নগরীর জামালখান এলাকায় প্রকাশ্যে ছুরি  মেরে হত্যা করে তারা। আদনান ইসফার এলজিইডি খাগড়াছড়ির প্রকৌশলী আদনান আখতারুল আজমের ছেলে। ঘটনাস্থলের কাছে চট্টগ্রাম প্রেস ক্লাবের পেছনেই তাদের বাসা।

গ্রেপ্তারের সত্যতা নিশ্চিত করে নগর পুলিশের উপকমিশনার (দক্ষিণ) এস এম মুস্তাহিদ হোসেন বলেন, ঘটনায় ব্যবহৃত রক্তমাখা ছুরিটি উদ্ধার করা হয়েছে। তাঁদের জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। আজ বেলা একটায় নগর পুলিশ কমিশনার কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে বিস্তারিত জানানো হবে।

উল্লেখ্য, চট্টগ্রাম কলেজিয়েট স্কুলের নবম শ্রেণির ছাত্র আদনান ইসফারকে (১৫) গত মঙ্গলবার দুপুরে নগরের জামালখান মোড়ে প্রকাশ্যে ধাওয়া করে ছুরিকাঘাতে খুন করেন একদল যুবক। ঘটনাস্থল থেকে মাত্র ৩০০ গজ দূরে কিশোর আদনানের বাসা। পুলিশ বলছে, ক্রিকেট ও ফুটবল খেলা নিয়ে বিরোধের জেরে এই খুন হয়েছে। পাঁচ যুবকের মধ্যে দুজন উত্ত্যক্ত, মারধর ও ছুরিকাঘাতের দুই মামলার আসামি।