দলীয় প্রতীক পেলে ‘দেশে ফিরেবেন’ পলাতক কাইয়ুম

দুই বছরেরও বেশি সময় ধরে পলাতক বিএনপি নেতা এম এ কাইয়ুম ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনে দলীয় প্রতীক পেলে দেশে ফিরে আসবেন বলে জানিয়েছেন তার একজন অনুসারী। রবিবার বিএনপির মনোনয়ন ফরম বিক্রির দিন কাইয়ুমের পক্ষে ফরম কেনেন ঢাকা উত্তর বিএনপির সিনিয়র সহসভাপতি বজলুল বাসিত আঞ্জু। আর তিনিই জানিয়েছেন, আগামী ২৬ ফেব্রুয়ারির ভোটকে সামনে রেখে ধানের শীষ প্রতীক পেলে দেশে ফিরবেন কাইয়ুম।

আঞ্জু বলেন, ‘তার (কাইয়ুম) প্রোফাইল দেখে বিবেচনা করবেন এমনটা আমাদের প্রত্যাশা। আর যদি দল মনোনয়ন দেয় তাহলে নিশ্চয়ই উনি দেশে আসবেন।’ তবে যদি কাইয়ুম মনোনয়ন না পান? আঞ্জু বলেন, ‘তিনি দলের প্রার্থীর জন্য দূরে বসে থেকেও কাজ করবেন।’

২০১৫ সালের ২৮ সেপ্টেম্বর গুলশানে ইতালীয় নাগরিক তাভেল্লা সিজার হত্যা মামলায় নাম আসার আগে থেকেই আত্মগোপনে ছিলেন এম এ কাইয়ুম। তিনি মালয়েশিয়ায় পালিয়ে গেছেন-এমন গুঞ্জন ছিল তখন থেকেই। কিন্তু নিশ্চিত হওয়া যাচ্ছিল না।

আর ২০১৭ সালের ১৯ এপ্রিল ঢাকা মহানগরের উত্তর শাখার সভাপতি করা হয় কাইয়ুমকে। আর এপ্রিলের শেষ সপ্তাহে কাইয়ুমকে সংবর্ধনা দেয় মালয়েশিয়া বিএনপি। আত্মগোপন থেকে বের হয়ে এসে কাইয়ুম সেদিন বলেন, ‘তথ্য প্রযুক্তির এই যুগে দূরে বসে দায়িত্ব পালন কোনো ঘটনাই না। আমার সঙ্গে প্রতিনিয়ত নেতাকর্মীদের যোগাযোগ হচ্ছে।’

তবে এতদিন ঢাকার রাজনীতিতে কাইয়ুমের কোনো প্রভাবের কথা শোনা যায়নি। আবার তিনি ঢাকার উত্তর অংশে ভোটে প্রার্থী হতে পারেন বলে এতদিন শোনাও যায়নি। কীভাবে সাক্ষাৎকার দেবেন কাইয়ুম? কাইয়ুমের সঙ্গে রবিবার ফরম কিনেছেন বিএনপির আরও চার নেতা। আর মনোনয়নের বিষয়ে সিদ্ধান্ত নিতে আজ সোমবার রাতে মনোনয়নপ্রত্যাশীদের সাক্ষাৎকার নেবেন তিনি। কিন্তু মালয়েশিয়ায় থাকা কাইয়ুমের সাক্ষাৎকার কীভাবে নেবেন খালেদা জিয়া?

জানতে চাইলে বিএনপির সহ-দপ্তর সম্পাদক তাইফুল ইসলাম টিপু বলেন, ‘সাক্ষাতকারে অবশ্যই প্রার্থীকে উপস্থিত থাকতে হবে। কিন্তু যদি সমস্যা হয় তাহলে তার প্রতিনিধি থাকতে পারবে সমস্যা নেই।’ দেশের বাইরে অবস্থান করায় কাইয়ুমের পক্ষে মনোনয়ন কেনা বজলুল বাসিত আঞ্জু বলেন, ‘কাইয়ুম ভাই নিজে উপস্থিত হতে পারবেন না। তবে দল তার প্রোফাইল তো জানে।’

আগামী ২৬ ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের উপ-নির্বাচন। বিএনপি থেকে মেয়র পদে মনোনয়ন ফরম নিয়েছেন তাবিথ আউয়াল, আসাদুজ্জামান রিপন, সাবেক সংসদ সদস্য আখতারুজ্জামান এবং শাকিল ওয়াহেদ। সোমবার রাতে এদের সাক্ষাতকার নিয়ে প্রার্থী চূড়ান্ত করা হওয়ার কথা রয়েছে।