কুড়িগ্রামে অগ্নিদগ্ধ মুক্তিযোদ্ধার দাফন সম্পন্ন

কুড়িগ্রামে হাড় কাপানো শীতে আগুন জ্বালিয়ে শীত নিবারণ করতে গিয়ে অগ্নিদগ্ধে ওসমান আলী (৬৬) নামের এক মুক্তিযোদ্ধা’র মৃত্যু হয়েছে। রবিবার (১৪ জানুয়ারি) দুপুরে জেলা শহরের কৃঞ্চপুর ডাকুয়া পাড়াস্থ পারিবারিক কবরস্থানে তাকে রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় দাফন করা হয়েছে।

এসময় স্থানীয় প্রশাসনের পক্ষে সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আমিন আল পারভেজের উপস্থিতিতে গার্ড অব অনার দেয়া হয়। এছাড়াও রংপুর সেনাসিবাসের ওয়ারেন্ট অফিসার আব্দুর রফিকের নেতৃত্ব ১৭ সদস্যের চৌকশ সেনা দল সাবেক এই সেনা সদস্যকে শেষ সম্মান জানান । এসময় তার সম্মানে ৩০ রাউন্ড ফাঁকা গুলি বর্ষণ করা হয়।

জেলা সদরের সাবেক উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার আব্দুল বাতেন জানান, প্রচন্ড শীতের কারণে তিনি গত বৃহস্পতিবার দুপুরে নিজ বাড়িতে আগুন পোহাচ্ছিলেন। এ সময় হঠাৎ করে তার কাপড়ে আগুন লেগে যায়। এতে তার শরীরের ৪৫ ভাগ অংশ পুড়ে যায়। পরে তাৎক্ষণিকভাবে তাকে কুড়িগ্রাম সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। অবস্থা খারাপ মনে হলে তাকে রংপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হয় । অবস্থার আরো অবনতি হলে শনিবার তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকা বার্ণ ইউনিটে স্থানান্তরের জন্য চিকিৎসকরা পরামর্শ দেন। সেনুযায়ী শনিবার বিকেল সাড়ে ৪ টায় ঢাকা নেয়ার পথে এ্যাম্বুলেন্সেই মৃত্যুর কাছে হার মানেন এ বীর মুক্তিযোদ্ধা।

মৃতকালে ওসমান আলী স্ত্রী, ৫ পুত্র, ৩ কন্যাসহ বহু গুণগ্রহি রেখে গেছেন। তিনি একই এলাকার মৃত জহির আলীর পুত্র। স্থানীয় প্রশাসনের পক্ষ থেকে তাৎক্ষণিক ২০ হাজার টাকা এবং সেনাবাহিনীর পক্ষ থেকে ৩ হাজার টাকা তার পরিবারের হাতে কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

মোঃ মনিরুজ্জামান, কুড়িগ্রাম প্রতিনিধি