ইরানে সাম্প্রতিক গোলযোগে ৪০০ ব্যক্তি আটক, নিহত ২৫

ইরানের বিচার বিভাগ জানিয়েছে, দেশটিতে সাম্প্রতিক গোলযোগের সময় নাশকতামূলক তৎপরতায় জড়িত থাকার অভিযোগে মোট ৪০০ ব্যক্তিকে আটক করা হয়েছে। এ ছাড়া, গোলযোগের সময় নিহত হয়েছে ২৫ জন। ইরানের বিচার বিভাগের মুখপাত্র গোলাম-হোসেইন মোহসেনি-এজেয়ি রোববার তেহরানে সাপ্তাহিক সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানান। তিনি বলেন, নিহত ২৫ জনের একজনও নিরাপত্তা বাহিনীর গুলিতে নিহত হয়নি।

তিনি বলেন, “গোলযোগের সময় যারা বিদেশ থেকে দিক-নির্দেশনা নিচ্ছিল এবং বিশৃঙ্খলা সৃষ্টিতে নেতৃত্ব দিয়েছে তাদেরকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। গোলযোগের প্রথম তিনদিনে মোট ৬২২ জনকে আটক করা হলেও পরে তাদের অনেককে জামিনে মুক্তি দেয়া হয়।”

আমেরিকা ও ইহুদিবাদী ইসরাইল ইরানের প্রতি বিদ্বেষী আচরণ অব্যাহত রেখেছে উল্লেখ করে মোহসেনি-এজেয়ি বলেন, সাম্প্রতিক গোলযোগে “তারা ইসলামি শাসনব্যবস্থার ক্ষতি করার চেষ্টা করেছে। ” ইরানের বিচার বিভাগের মুখপাত্র বলেন, কিন্তু মুষ্টিমেয় কিছু মানুষের গোলযোগ সৃষ্টির প্রচেষ্টার বিরুদ্ধে দেশের আপামর জনসাধারণ রুখে দাঁড়িয়েছে এবং শত্রুদের ষড়যন্ত্র নস্যাৎ হয়ে গেছে।

সম্প্রতি দ্রব্যমূল্যের উর্ধ্বগতির প্রতিবাদ জানিয়ে রাজধানী তেহরানসহ ইরানের কয়েকটি শহরে কিছু মানুষ বিক্ষোভ দেখান। শান্তিপূর্ণ ওই বিক্ষোভকে কাজে লাগিয়ে কিছু সুযোগসন্ধানী ব্যক্তি নাশকতামূলক তৎপরতা চালায় ও সরকারি সম্পদের ক্ষতি করে। এই অপরাধমূলক তৎপরতার নিন্দা জানিয়ে পরবর্তীতে ইরানজুড়ে সরকারের সমর্থনে বিশাল বিশাল শোভাযাত্রা অনুষ্ঠিত হয়।