রাজস্থানে ‘পদ্মাবত’ মুক্তির ছাড়পত্র দিল না বসুন্ধারা সরকার

দীর্ঘ টালবাহানার পর অবশেষে সেন্সর বোর্ডের কাছ থেকে ইউ/এ সার্টিফিকেট পেল সঞ্জয় লীলা বনশালির ‘পদ্মাবত’। নাম বদল, একটি গানের দৃশ্য বদল এবং আরও কিছু বিষয়ে পরিবর্তনের পরেই পাওয়া গেল সেন্সর বোর্ডের ছাড়পত্র।

ছবির নাম পরিবর্তন করে, এবং বিভিন্ন বিতর্কিত দৃশ্য বদলের পরও ‘পদ্মাবত’ মুক্তির ছাড়পত্র দিল না রাজস্থান সরকার। রাজস্থান সরকার নিজেদের দাবিতে এতটাই অনড় যে পরিবর্তনের পরও সেখানে মুক্তি পাচ্ছে না সঞ্জয় লীলা বানশালীর এই ছবি। সিবিএফসি থেকে ইউ/এ সার্টিফিকেট পেয়ে আপাতত সারা দেশে এই ছবি মুক্তির দিন নির্ধারিত হয়েছে আগামী ২৫ জানুয়ারি।

প্রসঙ্গত, শ্যুটিং শুরুর প্রায় প্রথম দিন থেকেই রাজপুত সংগঠন কার্ণি সেনার থেকে প্রতিবাদের মুখে পড়েন ছবির পরিচালক থেকে শুরু করে ক্র সদস্যরা। এমনকি একটি হামলায় গুরুতর জখম পর্যন্ত হন বনশালী, ভাঙচুর চালানো হয় সেটেও। কার্ণি সেনার সদস্যদের দাবি ছিল, ছবিতে চিতোরগড়ের রানি পদ্মাবতীর সঙ্গে আলাউদ্দিন খিলজির প্রেমের দৃশ্য দেখানো হয়েছে, যা তাঁদের ঐতিহ্যে, ইতিহাসে আঘাত করেছে। এছাড়া ছবিতে পদ্মাবতীকে নাচতে দেখা গিয়েছে ঘুমর গানের সঙ্গে। তাতেও ঘোরতর আপত্তি তোলে রাজস্থানের এই কট্টরপন্থি সংগঠন। তাদের দাবি ছিল, চিত্তোরগড়ের রানি, কখনওই কারও সামনে নাচেননি।

রাজস্থানের ঐতিহ্যে আঘাত যাতে না লাগে তাই পাঁচটি দৃশ্যের কিছু পরিবর্তন করে মুক্তির জন্যে ছাড়পত্র দেয় সেন্সর বোর্ড। তারপরও নাছোড়বান্দা কার্ণি সেনা রাজস্থান সরকারকে চাপ দিয়ে ছবি মুক্তির ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি রাখল ওই রাজ্যে